মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:২৩ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :

অভিন্ন প্রশ্নপত্রে এবারের এসএসসি পরীক্ষা অনুষ্টিত

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮
  • ৫ Time View

মো: মনির হোসেন ঃ প্রথমবারের মতো এবার সারা দেশে অভিন্ন প্রশ্নপত্রে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমান পরীক্ষা। সকল বোর্ডে একই প্রশ্নপত্র থাকার কারণে প্রশ্নফাঁসের আশঙ্কা করছেন অভিভাবক ও শিক্ষাবিদরা। প্রশ্নপত্র অভিন্ন হওয়ার কারনে কোন সেন্টারে প্রশ্নপত্র ফাঁস হলে সারা দেশের পরীক্ষা একযোগে বাতিল করা হবে । এমন শঙ্কা নিয়েই আজ বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে এই পরীক্ষা। বুধবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ জানান , এবারের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় মোট ২০ লাখ ৩১ হাজার ৮৮৯ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করছে। এরমধ্যে ১০ লাখ ২৩ হাজার ২১২ জন ছাত্র ও ১০ লাখ ৮ হাজার ৬৮৭ জন ছাত্রী রয়েছে। গত বছর এ পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থী ছিল ১৭ লাখ ৮৬ হাজার ৬১৩ জন। ৩ হাজার ৪১২টি কেন্দ্রে এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এবার পরীক্ষার্থী বেড়েছে ২ লাখ ৪৫ হাজার ২৮৬ জন । সংবাদ সম্মেলনে আরও জানানো হয়, তত্ত্বীয় পরীক্ষা ১ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে ২৫ ফেব্রুয়ারি এবং ব্যবহারিক পরীক্ষা ২৬ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে ৪ মার্চ শেষ হবে। । সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা এবং দুপুর ২টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে এবার আটটি সাধারণ বোর্ডের অধীনে এসএসসিতে মোট ১৬ লাখ ২৭ হাজার ৩৩৮ জন অংশ নেবে। এর মধ্যে ৭ লাখ ৯২ হাজার ৩৪৪ জন ছাত্র এবং ছাত্রী ৮ লাখ ৩৫ হাজার ৩৪ জন। তবে এবার ৮টি বোর্ডে ছাত্রদের তুলনায় ছাত্রীর সংখ্যা কিছুটা বেশি। আর মাদরাসা বোর্ডের অধীনে দাখিলে ২ লাখ ৮৯ হাজার ৭৫২ জন এবং এসএসসি ভোকেশনালে ১ লাখ ১৪ হাজার ৭৬৯ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেবে। গত বছরের চেয়ে এবার ২০৭টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং ১৭৬টি কেন্দ্র বেড়েছে। এছাড়াও বিদেশে অবস্থিত মোট ৮টি কেন্দ্রে ৪৫৮ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করছে। পরীক্ষা শুরু হওয়ার ৩০ মিনিট আগে পরীক্ষার্থীকে অবশ্যই পরীক্ষা কক্ষে প্রবেশ করতে হবে। কেন্দ্রসচিব ছাড়া অন্য কেউ মোবাইল ফোন বা ইলেকট্রনিক ডিভাইস নিয়ে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবেন না। কেন্দ্রসচিবও ছবি তোলা যায় না এমন মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন। এছাড়া দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ও সেরিব্রাল পলসি জনিত প্রতিবন্ধী এবং যাদের হাত নেই এমন প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থী শ্রুতি লেখক সঙ্গে নিয়ে পরীক্ষা দিতে পারবেন। তাদের অতিরিক্ত ২০ মিনিট সময় দেয়া হবে। শিক্ষামন্ত্রী পরিশেষে আরো জানান, পরীক্ষা শেষ হওয়ার ৬০ দিনের মধ্যে ফলাফল প্রকাশ করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

এই সাইটের কোন লেখা কপি পেস্ট করা আইনত দন্ডনীয়

Headlines