নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

 

হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক বলেছেন, আমাকে শীর্ষ সন্ত্রাসী হিসেবে জাতির কাছে চিহ্নিত করার জন্য একেক দিন একেকভাবে নাটক সাজানো হয়েছে। আমার দুই হাতে হাতকড়া পরানো হয়েছে।

সোমবার (১৭ অক্টোবর) নাশকতার মামলায় মামুনুলকে ঢাকার বিশেষ ট্রাইব্যুনাল-১৪ এর বিচারক ফাতিমা ইমরোজ ক্ষণিকার আদালতে হাজির করা হয়। এদিন আদালত থেকে কারাগারে নেওয়ার সময় উত্তেজিত হয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

বর্তমানে নাশকতার এ মামলাটি সাক্ষ্যগ্রহণ পর্যায়ে রয়েছে। তবে এদিন মামলার কোনো সাক্ষী আদালতে হাজির হননি।

মামুনুলের আইনজীবী সৈয়দ জয়নুল আবেদীন মেজবাহ বলেন, আজ মামলাটির সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য দিন ধার্য ছিল। তবে কোনো সাক্ষী সাক্ষ্য দিতে আদালতে হাজির হননি।

২০১৫ সালের ১৪ জানুয়ারি মিরপুর মডেল থানাধীন মধ্য পীরেরবাগে বিএনপি ও জামায়াতে ইসলামীর নেতাকর্মীরা গাড়ি ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। এ ঘটনায় মিরপুর মডেল থানার তৎকালীন সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) খন্দকার রাজিব আহমেদ বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলাটি দায়ের করেন।

মামলাটির তদন্ত শেষে ২০১৫ সালের ৩১ মার্চ মাওলানা মামুনুল হকসহ ৬৫ জনকে আসামি করে অভিযোগপত্র দাখিল করেন মিরপুর মডেল থানার এসআই মো. রফিকুল ইসলাম। ২০১৭ সালের ২৮ নভেম্বর আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here