Amar Praner Bangladesh

কুষ্টিয়ায় তৈরি হচ্ছে ভেজাল গ্রিজ 

 

 

হাসনাত রাব্বু, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি :

পোড়া মবিল,এরারোড,ময়দা কাঠকয়লার চুলায় উন্মুক্ত পরিবেশে জ্বালিয়ে তৈরি করা হয় পিচ্ছিলকারী পদার্থ গ্রিজ,ইঞ্জিন অয়েল ও গিয়ার অয়েলের মতো গুরুত্বপূর্ণ রাসায়নিক পণ্য। এছাড়াও তৈরি হয় বিভিন্ন নামীদামী ব্রান্ডের নকল মবিল।এতোসব রাসায়নিক পণ্য তৈরি হলেও প্রতিষ্ঠানে নেই কোনো ল্যাব ও কেমিস্ট।গ্রাম্য লোকালয়ে উন্মুক্ত পরিবেশে ছড়িয়ে পড়া ধোঁয়া ও দুর্গন্ধে চরম ঝুঁকিতে রয়েছে এলাকার জনস্বাস্থ্য ও কৃষি।

সরেজমিনে দেখা যায়, মিরপুরের তেঘরিয়া গ্রামের তেঘরিয়া-ভারল রোডে কৃষি জমিতে অবস্থিত লুপস (Loops) লুব্রিকেন্টস লিমিটেড নামক অবৈধ কারখানায় পোড়া মবিল,এরারোড,ময়দা কাঠকয়লার চুলায় উন্মুক্ত পরিবেশে জ্বালিয়ে তৈরি করা হচ্ছে পিচ্ছিলকারী পদার্থ গ্রিজ,ইঞ্জিন অয়েল ও গিয়ার অয়েলের মতো গুরুত্বপূর্ণ রাসায়নিক পণ্য।৩ জন শ্রমিক মোড়কজাত করছে ভেজাল গ্রিজ। পোড়া মবিল,এরারোড ও ময়দার বস্তার স্তুপ রয়েছে কারখানার ভেতরের একটি টিনের কক্ষে। কারখানা কর্তৃপক্ষ দেখাতে পারেনি বিএসটিআই, পরিবেশ অধিদপ্তর ও রাসায়নিক সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কোনো অনুমতিপত্র।তাছাড়া কারখানার নামে কারখানার কোথাও কোনো সাইনবোর্ড নাই।অত্যন্ত গোপনীয়তার সাথে গ্রাম্য লোকালয়ে তৈরি হচ্ছে এসব ভেজাল রাসায়নিক পণ্য।

অবৈধ কারখানায় উৎপাদিত এসব ভেজাল লুব্রিকেন্টসগুলো চমকপ্রদ বিজ্ঞাপন সম্বলিত মোড়কে মোড়কজাত করে করা হয় বাজারজাত। যার দরুন নিয়মিতভাবে প্রতারিত হচ্ছে সাধারণ ভোক্তা, রাষ্ট্র বঞ্চিত হচ্ছে তার রাজস্ব আয় থেকে এবং ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে নিবন্ধিত লুব্রিকেন্টস কোম্পানিগুলো।

এ বিষয়ে নামপরিচয়হীন কারখানায় কর্মরত একজন বলেন,আমরা ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ট্রেড লাইসেন্স নিয়ে প্রতিষ্ঠান চালাচ্ছি। প্রতিষ্ঠান নির্মানাধীন আছে।উপরোক্ত রাসায়নিক পণ্য তৈরির কাঁচামাল সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি কিছু বলতে পারেননি।ল্যাব এবং কেমিস্ট সম্পর্কে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি নিশ্চুপ ছিলেন।