Amar Praner Bangladesh

খালেদা জিয়া মুক্ত, দাবি আইনমন্ত্রীর

 

 

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

 

বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া মুক্ত বলে দাবি করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। তিনি বলেছেন, ‘খালেদা জিয়া এখন মুক্ত, কারণ তিনি নিশ্চিতভাবে সরকারি হেফাজতে নেই।’

২৮ নভেম্বর, রবিবার সংসদে আইনমন্ত্রী এ কথা বলেন। ‘খালেদা জিয়া এখনও সরকারি হেফাজতে আছেন’ বলে সংসদে বিএনপির সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানার করা মন্তব্যের জবাবে সংসদে আইনমন্ত্রী এ কথা বলেছেন।

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘তিনি (খালেদা) অবশ্যই মুক্ত। তিনি স্পষ্টতই আমাদের হেফাজতে বা সরকারি হেফাজতে নয়। ফলে তিনি অবশ্যই তার ইচ্ছামতো যে কোনও জায়গায় চিকিৎসা পেতে পারেন এবং তিনি তা করছেন।’

সংসদে বিএনপির সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানা বলেছিলেন, ‘নেত্রীর কিছু হলে তার পুরো দায়ভার সরকারকেই বহন করতে হবে। কারণ তিনি গত তিন বছর ধরে সরকারি হেফাজতে রয়েছেন।’

তিনি বলেন, ‘আইনমন্ত্রী এর আগে যুক্তি দিয়েছিলেন যে, ফৌজদারি কার্যবিধির একই বিধানে (ধারা ৪০১) একটি ফৌজদারি মামলা পুনর্বিবেচনার সুযোগ না থাকায় বিদেশে যাওয়ার জন্য খালেদা জিয়াকে আবার কারাগারে যেতে হবে।’

রুমিন বলেন, ‘কিন্তু ফৌজদারি কার্যবিধির ৪০১ ধারায় এমন কিছু নেই। এই বিধানটি সরকারকে এই বিষয়ে যে কোনও সিদ্ধান্ত নেয়ার সীমাহীন কর্তৃত্ব দেয়।’

বিএনপির সংসদ সদস্য মোশারফ হোসেন বলেছেন, ‘সরকার যেহেতু যুক্তি দিচ্ছে যে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে বিদেশ যাওয়ার অনুমতি নিতে আবার কারাগারে যেতে হবে, তাই সরকার তার বাসভবনকে সাব-জেল ঘোষণা করে তাকে বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দিতে পারে।

এসব মন্তব্যের জবাবে আইনমন্ত্রী জানান, এ বিষয়ে তিনি যা বলেছেন তার ওপর এখনও অটল রয়েছেন। একটি নির্ধারিত মামলার বিষয়ে আর কোন সিদ্ধান্ত দেয়া যাবে না।

তিনি বিএনপির সংসদ সদস্যদকে ইঙ্গিত করে বলেন, ‘আপনি ধারা ৪০১ (সিআরপিসি) নিয়ে কী ব্যাখ্যা দিয়েছেন তা নিয়ে আমার মতভেদ রয়েছে।

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘খালেদা জিয়াকে মানবিক কারণে মুক্ত করা হয়েছে এবং তার ওপর নতুন দাবি মেনে নেয়া যায় কি না সরকার বিবেচনা করবে।