গাজীপুরে বেড়েছে মশার উপদ্রব

প্রকাশ : রবিবার, মে ১২, ২০১৯ পূর্বাহ্ণ ১২:৫৮

মো:আসাদুজ্জামান:
গাজীপুর মহানগরীর বেশির ভাগ এলাকায় রয়েছে ছোট বড় মাঝারি পচা ডোবা নালা।যা সব সময় পচা আবর্জনায় ভরপুর থাকে। এ গুলো পানিতে মিশে পচন ধরে মশার ক্রীট সৃষ্টি হয়।সেই সাথে পর্যাপ্ত ড্রেনেজ ব্যাবস্থা না থাকায় পানি আটকা থাকে বিধায় সৃষ্টি হওয়া ক্রীট কোথাও বের হতে পারেনা।
ফলে এই ক্রীটগুলো আস্তে আস্তে বড় হয়ে মশায় পরিনত হয়ে বাসাবাড়ি ও বিল্ডিংয়ের দেয়াল এবং রাস্তার পাশে বেড়ে ওঠা ঘাস,জলজ ঊদ্ভিধের উপর নিরাপদ আশ্রয় গ্রহন করে।পরবর্তীতে সন্ধ্যায় কিবা দিনের বেলায় মানুষ ও গবাদি পশুকে এরা আক্রমণ করে।এতে করে মানুষের শরীরে  ম্যালেরিয়া,ফাইলেরিয়া,ডেঙ্গু সহ অন্যান্য কঠিন রোগের বাহন প্রবেশ করে।এতে করে মানুষের মৃত্যু পযর্ন্ত হতে পারে।

আর যেসব এলাকায় ড্রেনেজ ব্যাবস্থা রয়েছে সেগুলো অনেক দিন হল সংস্কার না করার ধরুন সেখানে মশারা ডিম ফুটিয়ে বাচ্চা দিয়ে বংশ বিস্তার করে।এভাবে মশাদের বিস্তার আর উৎপাতে গাজীপুরবাসী অতিষ্ঠ হয়ে জনজীবন হুমকির মধ্যে আছে।সিটিকর্পোরেশন এলাকায় মাঝে মাঝে ক্রীটনাশক প্রয়োগ করে এসব মশার বংশ নির্বংশ করার বিধান থাকলেও দীর্ঘদিন যাবত এর কোনো প্রয়োগ করা হচ্ছে না।
তাই গাজীপুরবাসীর দাবি ড্রেনেজ সংস্কার করে মশা নিধন ঔষধ প্রয়োগ করে মহামারি ভয়ংকর রোগ জীবাণু থেকে মানুষকে রক্ষা করার জন্য সংশ্লেষ্ট কতৃপক্ষের ব্যাবস্থা গ্রহন করার।