গৌরনদী প্রতিনিধিঃ
বরিশালের গৌরনদী উপজেলার নিলখোলা থেকে ডিবি পরিচয়ে টাকা ছিনতাই করে মাইক্রোবাসযোগে পালানোর সময় পাঁচ ছিনতাইকারীকে আটক করেছে পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে হাতকড়া, ডিবির পোশাক, ওয়াকিটকি সেট উদ্ধার করা হয়েছে।
আটককৃতরা হলো মাদারীপুর জেলার উত্তর দুধখালী গ্রামের মোসলেম হাওলাদারের পুত্র সিরাজ হাওলাদার (৩৮), একই গ্রামের আয়নাল হাওলাদারের পুত্র সুমন হাওলাদার (৩৮), শিবচরের জাহাঙ্গীর ফরাজীর পুত্র নাসের ফরাজী (৩২), শরিয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার পুঠিজুড়ি গ্রামের মজিদ হাওলাদারের পুত্র আলম হাওলাদার (৩৯) ও নীলফামারী জেলার ডোমার উপজেলার চিকল গ্রামের ছলেমান আলীর পুত্র মোঃ রানা (২৭)। বৃহম্পতিবার সন্ধ্যায় গৌরনদী মডেল থানা পুলিশের সহযোগীতায় কোটালীপাড়া থানা পুলিশ উপজেলার বহড়াবাড়ি গ্রাম এলাকা থেকে তাদের আটক করে।
পুলিশ জানায়, গৌরনদী উপজেলার খাঞ্জাপুর গ্রাামের খাদিজা বেগম (৫২) ও তার পুত্র কায়েস হাওলাদার (৩০) নির্মাণ সামগ্রী ক্রয়ের জন্য নগদ ৮০ হাজার টাকা নিয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে বাড়ি থেকে বের হয়। তারা টরকী বন্দর সোনালী ব্যাংক শাখা থেকে আরও ২ লাখ টাকা উত্তোলন করেন। মোট ২ লাখ ৮০ হাজার টাকা নিয়ে রড, সিমেন্ট ক্রয়ের জন্য তারা টরকী থেকে ইজিবাইক যোগে ভুরঘাটার উদ্দ্যেশে রওনা হন। পথিমধ্যে নিলখোলা নামকস্থানে পৌঁছলে একটি মাইক্রোবাস তাদের গতিরোধ করে ডিবি পরিচয়ে তাদের টেনে হিঁচড়ে মাইক্রোবাসে তোলে। এ সময় গৌরনদী মডেল থানার চৌকস সেকেন্ড অফিসার এসআই সগীর হোসেন বিষয়টি দেখে তাদের আটকানোর চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়। বিষয়টি তাৎক্ষনিক তিনি (সগীর) পাশ্ববর্তী সকল থানার ওসিদের অবহিত করেন।
সূত্রে আরও জানা গেছে, ছিনতাইকারীরা খাদিজা ও কায়েসকে মাইক্রোবাসে তুলেই চোঁখ বেঁধে তাদের সাথে থাকা টাকা ছিনিয়ে নেয়। ছিনতাইকারীরা গৌরনদী থেকে আগৈলঝাড়া মহাসড়ক ধরে কোটালীপাড়ায় প্রবেশ করে। পীড়ারবাড়ীতে মাইক্রোবাস থেকে খাদিজা ও কায়েসকে ফেলে দিয়ে ছিনতাইকারীরা পালিয়ে যায়। এদিকে পুলিশ বিভিন্ন মোড়ে ব্যারিকেট সৃষ্টি করায় ভাঙ্গারহাট পুলিশ ফাঁড়ি এলাকার বহড়াবাড়িতে পুলিশ ব্যারিকেট দেখে ছিনতাইকারীরা গাড়ি থামিয়ে পালানোর চেষ্টাকালে উল্লেখিতদের পুলিশ আটক করে।
এস.আই সগীর হোসেন জানান, গত ২১ ডিসেম্বর টরকী বন্দর ন্যাশনাল ব্যাংক শাখা থেকে উত্তর কোরিয়া ফেরত কালকিনি উপজেলার উত্তর চরআইকান্দির বাসিন্দা তালুকদার জলিল নামের এক ব্যক্তি আড়াই লাখ টাকা উত্তোলন করেন। ওই চক্রটি ভুয়া ডিবি পরিচয়ে জলিলকে গাড়িতে তুলে তাকে মারধর করে ওই টাকাসহ তার সাথে থাকা অন্যান্য মালামাল নিয়ে রাস্তার পাশে ফেলে রাখে। ওই ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।
কোটালীপাড়া থানার ওসি মোহাম্মদ কামরুল ফারুক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, গৌরনদী মডেল থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই সগীর হোসেনের সহযোগীতায় আটককৃত ছিনতাইকারীদের কাছ থেকে হাতকড়া, ডিবির পোশাক, ওয়াকিটকি সেট উদ্ধার করা হলেও তাদের অপর সদস্যরা টাকা নিয়ে পালিয়ে গেছে। টাকা উদ্ধারের জন্য পুলিশের অভিযান চলছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here