নারগিস আক্তার :

 

গাজীপুর মহানগরের বাসন থানা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে বাকি অল্পকিছু সময়। ইতিমধ্যেই প্রার্থীরা চালাচ্ছে জোরেশোরে প্রচারণা। তবে সকল প্রার্থী দের মধ্যে সাধারন সম্পাদক প্রার্থী হিসাবে সবার কাছে সৎ নিষ্ঠাবান, বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক হিসেবে আলোচিত,সাবেক সদস্য গাজীপুর জেলা ছাত্রলীগ,সাবেক সদস্য বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, সাবেক সহ সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ,সভাপতি আলহাজ্ব সামসুদ্দিন সরকার জামিয়া মসজিদ, সভাপতি ভোগড়া মধ্য পাড়া নায়েববাড়ী জামিয়া মসজিদ,সদস্য গাজীপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি গাজীপুর জেলা, আজীবন দাতা সদস্য কোনাবাড়ি ডিগ্রি কলেজ, চান্দনা উচ্চ বিদ্যালয়, পিরুজালী আদর্শ উচ্চ বিদ্যায় ও রোভার পল্লী ডিগ্রি কলেজ এবং দুইবারে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটির সদস্য মোঃ রকিব সরকার।

মোঃ রকিব সরকার ছাত্রলীগের রাজনীতি দিয়ে তার রাজনৈতিক জীবনের হাতেখড়ি। সেই থেকে রাজনীতির মাঠের বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে নিজেকে নিয়জিত রেখেছেন তিনি। এবার এই মুজিব আদর্শের সৈনিক গাজীপুর মহানগরের বাসন থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হিসাবে নিজের নাম ঘোষণা করেছেন। দীর্ঘ দিনের রাজনৈতিক জীবনে অনেক চরাই উৎরাই পার করেছেন মোঃ রকিব সরকার। গাজীপুর মহানগরের বাসন থানার একাধিক প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা ও বীর মুক্তিযোদ্ধারা জানায়, গাজীপুর মহানগরের বাসন থানার প্রতিটি ওয়ার্ডে রয়েছে মোঃ রকিব সরকারে গ্রহণ যোগ্যতা ও নেতৃত্বের সমর্থন। দলের অধিকাংশ নেতাকর্মীরাও বলছে গাজীপুর মহানগরের বাসন থানায় এই মুহুর্তে সৎ, নিষ্ঠাবান, দায়িত্বশীল নেতৃত্বে প্রয়োজন।

শিক্ষিত তরুণরাও মনে করেন এই থানায় আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক হিসেবে সর্বদিক দিয়ে মোঃ রকিব সরকারের কোন বিকল্প নেই। গাজীপুর মহানগরের বাসন থানা আওয়ামী লীগের একাধিক আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা কর্মীরা মনে করেন অতীতের সকল রেকর্ড হিসেবে ক্লিন ইমেজের নেতৃত্ব তার মধ্যেই রয়েছে। দলের প্রতি নিবির ভালোবাসা আর আওয়ামীলীগের ধারক বঙ্গবন্ধুকন্যা সফল রাষ্ট্রনায়ক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনীতির প্রতি আস্থার হাল ধরতে প্রতিটি ওয়ার্ডেই মোঃ রকিব সরকারের মতো নেতাদের দায়িত্ব দেওয়া উচিত।

তিনি একজন সৎ, সাহসী, মেধাবী, পরিশ্রমী, ত্যাগী আওমীলীগের নেতা। চারদলীয় জোট সরকার বিরোধী আন্দোলন, ওয়ান এলিভেনে জননেত্রী শেখ হাসিনার মুক্তির আন্দোলনসহ আওয়ামীলীগের বিভিন্ন আন্দোলনের সময় রাজপথে দলীয় নেতা কর্মী সমর্থকদের সংগঠিত করে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন মোঃ রকিব সরকার। ওয়ান-এলিভেনের সময় এলাকার ঝিমিয়ে পড়া আওয়ামী- ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দকে সুসংগঠিত করে আন্দোলনের জন্য রাজপথে ছিলেন এই নেতা।

দুইবারে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটির সদস্য মোঃ রকিব সরকার বলেন,‘বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে ধারণ করে তার আদর্শ বাস্তবায়ন ও জনগনের কল্যাণে জনগণের খেদমত করা আমার রাজনৈতিক মূল উদ্দেশ্য। আমি সবসময় জনগনের কল্যানের জন্য রাজনীতি করি। মানবতার মা আমাকে শিক্ষা দিয়েছেন মানবতার শিক্ষা, দরিদ্র মানুষের পাশে দাড়ানোর শিক্ষা, মৃত্যুর আগ মুহুর্ত পর্যন্ত জনগণের কল্যাণে মানবতার মায়ের দেওয় শিক্ষাকে দারন করে মানবতারই কাজ করে যাবো।

তিনি আরও বলেন, সকল পর্যায়ের তৃন-মূল নেতা কর্মীদের সুখ-দুঃখের সাথী হয়ে রাজপথে অবস্থান করেছি। এমনকি রাজনৈতিক জীবন শুরুর দিন থেকে আজ-অবধি একটি দিনও রাজনীতির রাজপথ থেকে ছুটি নিয়ে অবকাশ যাপন করেনি। আমি দলের দায়িত্ব পেলে সকল ভেদাভেদ ভুলে দলকে আরও সু-সংগঠিত করতে সবাইকে নিয়ে কাজ করার আশাবাদ ব্যক্ত করছি।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here