আব্দুল¬াহ আল মামুন, ঝিনাইদহ।
ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডু উপজেলার ঘোড়াগাছা মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও ঘোড়াগাছা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তালা ভেঙে চুরির হয়েছে বলে অভিযোগ । মঙ্গলবার রাতে দুই স্কুলের তালা ভেঙে চুরি হয়েছে বলে জানা গেছে। ঘোড়াগাছা মাধ্যমিক স্কুলের বিভিন্ন কাজের দুর্নীতি ঢাকতেই এমন কাজ করছেন প্রধান শিক্ষক আবুল কাশেম বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ। পাশাপাশি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তালা ভাঙ্গার নাটকও তিনি করেছেন বলে অভিয়োগ বুধবার সকালে সরেজমিনে দেখা যায় স্কুল দুইটির তালা ভাঙা অবস্থায় পাওয়া যায়।
ঘোড়াগাছা লাল মোহাম্মদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নৈশ প্রহরী মোঃ আসমত আলীর কাছে জানতে চাওয়া হলে বলেন আমরা রাতে স্কুল পাহারা দিয়ে সকালে বাড়ি যায়। আবার পরের দিন স্কুল পাহারা দিতে আসি। হঠাৎ মঙ্গলবার রাতে এসে স্কুলের অফিসের তালা ভাঙা অবস্থায় পায়। পরে আমরা প্রধান শিক্ষককে বিষয়টি জানায়।
ঘোড়াগাছা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নৈশপ্রহরী লিটনের কাছে চুরির বিষয়টি জানতে চাওয়া হলে চুরির বিষয়টি অস্বীকার করে। পরে জানায় স্কুলের কোন তালা টালা ভাঙা হয়নি এবং কোন চুরির ঘটনাও ঘটেনি। এব্যাপারে আমি কিছু বলতে পারবো না আমার স্যারদের সাথে কথা বলুন।
ঘোড়াগাছা লাল মোহাম্মদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ল্যাব সহকারী মোয়াজ্জেম জানায়, আমাদের বিদ্যালয়ের তালা ভাঙা হয়েছে এমন সংবাদ পেয়ে আমরা প্রধান শিক্ষক সহ স্কুলে যায়। পরে অফিসে ঢুকে দেখি তেমন কিছু চুরি হয়নি। তবে প্রাইমারী স্কুলের একটি ক্যালকুলেটর ও একটি স্পীকার চুরি হয়েছে।
এলাকাবাসী জানান, ঘোড়াগাছা মাধ্যমিক স্কুলের বিভিন্ন কাজের দুর্নীতি হয়েছে। আরসব ঢাকতেই এমন কাজ করছেন প্রধান শিক্ষক আবুল কাশেম । পাশাপাশি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তালা ভাঙ্গার নাটকও তিনি করেছেন বলে অভিয়োগ। তদন্ত করলে আসল রহস্য বেরিয়ে আসবে বলে তরা জানান।
এ বিষয়ে ঘোড়াগাছা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবুল কাশেমের মোবাইলে বুধবার সারাদিন যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here