Amar Praner Bangladesh

টংঙ্গী থেকে চৌরাস্তার দুইপাশে র্দুগন্ধে মরন অবস্থা

(নেপথ্যে মেয়র জাহাঙ্গীর এর অবহেলা কচ্ছব গতিতে কাজ, নির্বাচনের আগের ওয়াদার সাথে বর্তমান প্রেক্ষাপটের বিস্তর তফাদ। ফেইসবুক, দাওয়াত খাওয়া আর দলীয় বুলিতে জণগনের সেবায় অবহেলার অভিযোগ উঠেছে)

 

 

সুমা আক্তার:

 

রাজধানী ঢাকার পাশ^বর্তী জেলা গাজীপুর অন্যতম ব্যস্ততম এলাকা কলকারখানা, মিল ফ্যাক্টরী, গণবসতি গড়ে উঠাতে গাজীপুুরের চেহারা পাল্টে গেছে গত বেশ কয়েক বছরের মধ্যে। আব্দুল্লাহপুর থেকে ময়মনসিংহ হাইওয়ে বড় রাস্তাটি চলে গেছে গাজীপুরের বুক চীরে। প্রতি মূহুর্তে জ্যাম, গাড়ীর আনাগোনা, ফুটপাত দখল, অগণিত মানুষের চলাফেরায় দিন-রাত মুখরিত থাকে এই এলাকা।

 

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় আশার পর সারা দেশ ব্যাপি উন্নয়নের জোয়ার শুরু হলেও গাজীপুরের টংঙ্গী থেকে চৌরাস্তার উন্নয়নে কোন প্রকার পরিবর্তন হয়নি। রাস্তার দু-পাশে বড় নালার মতো করে খানা-খন্দ আর এসব গর্ত-নালায় জমে আছে ময়লার স্তুব। রাস্তার উপরে পড়ে থাকে ময়লার পাহাড়। বৃষ্টি-বাতাসে এর দূগর্ন্ধ এতটাই ভয়াবহ ভূক্তভোগী জ্যামে আটকা থাকা সাধারণ মানুষ ছাড়া কেউ বুঝে না।

 

গাজীপুর চৌরাস্তা থেকে প্রতিদিন উত্তরা অফিস করতে আসা আমেনা খাতুন বলেন, মন্ত্রী আর মেয়র মহোদয়রাতো দামী-গাড়ীতে কাচের বেষ্টনীর মধ্যে এসির আরামে বলে, ময়লার গন্ধ তাদের নাকে পৌঁছায় না। তারা কি করে বুঝবে গরীবের কষ্ট। তাছাড়া আমাদের মেয়র মহোদয় ফেইসবুক, দাওয়াত আর দলীয় তোষামতিতেই নিজের অবস্থান ধরে রাখার চেষ্টা করছেন। সাধারণ জণগনের সেবা করার প্রয়োজন হয়না। শুধু টংঙ্গী- চৌরাস্তা নয় গাজীপুরের অলিগলি-ছোটবড় সব রাস্তাই প্রায় একই অবস্থা আমরা যে কবে কথায় নয় কাজে বড় হবো আল্লাহই জানে। এভাবে এলাকার বিভিন্ন শ্রেণী পেশা মানুষের আলোচনা-সমালোচনা চলে দিন-রাত।

 

জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের সৈনিক মেয়র জাহাঙ্গীর আলম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের আদর্শে বিশ^াসী, আপনার উপর গাজীপুর-বাসীর অনেক প্রত্যাশা। আগামীর স্বপ্নের সোনার বংলা নির্মাণে আপনার কাছে সবার চাওয়াটা একটু বেশি বলেই এলাকাবাসীর দাবী।