আ: রশিদ তালুকদার, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি :

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে পরীক্ষার হলে চাপাতি নিয়ে প্রবেশ করায় সামির আলী নামে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রকে বিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। রোববার (১২ জুন ) সকালে মির্জাপুর উপজেলা সদরের সরকারি সদয় কৃষ্ণ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে এই ঘটনা ঘটে। সামির আলী মির্জাপুর পৌর সভার বাইমহাটি প্রফেসরপাড়া এলাকার এমদাদ আলীর ছেলে। ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম খান।

জানাগেছে, রোববার সকালে ওই বিদ্যালয়ে অর্ধবার্ষিকী পরীক্ষা চলছিল। এদিন অষ্টম শ্রেণির বিশ্বপরিচয় বিষয়ের পরীক্ষা ছিল। বিদ্যালয়ের ৫ নম্বর কক্ষে সামির আলী নামে অষ্টম শ্রেণির ওই ছাত্র প্যান্টের পকেটে চাপাতি নিয়ে প্রবেশ করে। এসময় পরীক্ষার কক্ষে দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষক আলো রানী পোদ্দারের সন্দেহ হলে তিনি পকেট থেকে চাপাতিটি বের করতে বাধ্য করেন।

শিক্ষক আলো রানী পোদ্দার বিষয়টি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম খানকে অবহিত করেন। পরে প্রধান শিক্ষক বিষয়টি বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনও) মো. হাফিজুর রহমানকে জানান। পরে ইউএনও’র নির্দেশে প্রধান শিক্ষক অভিযুক্ত ছাত্রের অভিভাবকের অঙ্গীকারনামা রেখে বিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের নির্দেশ দেন।
এদিকে, চাপাতি নিয়ে পরীক্ষার হলে প্রবেশের ঘটনাটি জানাজানি হলে বিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থী এবং তাদের অভিভাবকদের মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়।

প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম খান জানান, মির্জাপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশে অভিযুক্ত ছাত্রের অভিভাবকের কাছ থেকে অঙ্গীকারনামা নিয়ে অভিযুক্ত ছাত্রকে বিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here