রবিউল আলম রাজুঃ

 

রাজধানীর তুরাগের ষোলহাটি এলাকা থেকে উত্তরা মেট্রোরেল প্রকল্পের চোরাই বৈদ্যুতিক কেবলের তার সহ চোর সিন্ডিকেটের এক সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তির নাম মো: নাসিম (২৫)।

মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১০ টার দিকে তুরাগের ষোলহাটি এলাকা ১০ নং ব্রিজ সংলগ্ন নোয়াখালী হোটেলের পিছনে নার্সারী থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে আনুমানিক ৪০ কেজি ওজনের সরকারী বৈদ্যুতিক কেবলের দুই বান্ডিল তার উদ্ধার করে পুলিশ। ঘটনার সময় ধৃত মো: নাসিমের সহযোগি অপরজন দৌঁড়ে পালিয়ে যায়।

বুধবার রাতে ডিএমপির তুরাগ থানার উপ- পরিদর্শক (এসআই) মো: মোজাম্মেল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও স্হানীয় লোকজন জানান, মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১০ টার দিকে তুরাগের ষোলহাটি এলাকা ১০ নং ব্রিজ সংলগ্ন নোয়াখালী হোটেলের পিছনে নার্সারী থেকে চোর দলের সদস্য নাসিমকে পুলিশ তারসহ আটক করে গাড়িতে উঠানোর সময় খবর পেয়ে তাকে ছাড়াতে নানা তদবির চালাতে থাকে চোর সিন্ডিকেটের অন্যান্য সদস্য হাবিব (২৭) ও তার সহযোগী চোর নাসিমের দুলাভাই স্বাধীন (৩২)।

তারা ঘটনাস্থলে আসা তুরাগ থানার এসআই মোজাম্মেলের সাথে দেনদরবার শুরু করেন। কিন্তু সাংবাদিকদের উপস্থিতি টের পেয়ে জব্দ তালিকা না করেই চোরাই মালসহ চোরকে আটক করে নিয়ে যান পুলিশের এই এসআই। বিষয়টি সন্দেহ হলে ঘটনাটি জানতে তুরাগ থানায় যান সাংবাদিকরা। সেখানে গিয়ে তারা দেখেন এস আই মোজাম্মেলের সাথে আটককৃত ব্যাক্তির দুলাভাইয়ের চলছে দেনদরবার। এক পর্যায়ে আবারো সাংবাদিকদের উপস্থিতি টের পেয়ে থানায় ঢুকে যান এসআই‌ মোজাম্মেল ।

পরে কনস্টেবলের মাধ্যমে ঘটনাস্থলে উপস্থিত দুই সাংবাদিককে ডেকে নিয়ে মামলার সাক্ষীদের জায়গায় স্বাক্ষর করতে বাধ্য করেন তুরাগ থানার ওই এসআই।

এ বিষয়ে এসআই মো: মোজাম্মেল জানান, আমি গতরাতে খবর পেয়ে ঘটনাস্হলে পৌঁছে উত্তরা মেট্রোরেল প্রকল্পের চুরি করা দুই বান্ডিল তারসহ নাসিমকে আটক করেছি। তার বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here