মনির হোসেন (শিশির) :

রাজধানীর তুরাগে মোঃ ফারুক হোসেন (২৮) নামের এক যুবকের পুরুষাঙ্গ কেটে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে। ঘটনার পর পালিয়ে গেছেন অভিযুক্ত স্ত্রী মোছা : আমেনা খাতুন (২৫)।

শনিবার ভোর সাড়ে ৪ টায় তুরাগ থানাধীন আহালিয়া এলাকায় বুলবুল মিয়ার ভাড়াটিয়া বাসায় এ ঘটনা ঘটে। ওই যুবককে আশঙ্কাজনক অবস্থায় গাজীপুরে শহীদ তাজউদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বিয়ের শুরু থেকেই পারিবারিক বিষয় নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহ ছিল। এরপর থেকেই টাকা-পয়সার হিসাব নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া লেগে থাকত। শনিবার ভোরে চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন ঘরে গিয়ে দেখেন মোঃ ফারুক হোসেনকে ধারালো চাকু দ্বারা তার বিশেষ অংগে ( পুরুষাঙ্গ) কেটে গুরুত্বর রক্তাক্ত জখম করে তার স্ত্রী। ততক্ষণে পালিয়ে যান তার স্ত্রী মোছা : আমেনা খাতুন (২৫)। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় তার বড় ভাই নিজাম উদ্দিন তাকে উদ্ধার করে গাজীপুরে শহীদ তাজউদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এ ঘটনাটি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

ভুক্তভোগী মোঃ ফারুক হোসেন ময়মনসিংহ জেলার হালুয়াঘাট থানার পূর্ব নড়াইল গ্রামের মোঃ আবুল হোসেনের ছেলে। তার স্ত্রী ময়মনসিংহ জেলার হালুয়াঘাট থানার দক্ষিণ খয়রাখড়ি গ্রামের সাবেদ আলীর মেয়ে।

এই বিষয়ে তুরাগ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. শরিফুল ইসলাম জানান, পারিবারিক বিষয় নিয়ে আগে থেকেই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহ ছিল। প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে এই কলহের জেরেই এ ঘটনা ঘটেছে। এ নিয়ে ভুক্তভোগীর বড় ভাই নিজাম উদ্দিন থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। তদন্ত শেষে জানা যাবে প্রকৃত ঘটনা। বর্তমানে স্ত্রী পলাতক রয়েছেন।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here