নবীন, নীলফামারী প্রতিনিধিঃ

 

নীলফামারীর ডোমারে প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাতে ইদ্রিস আলী নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা ছয়টার দিকে ডোমার উপজেলার হরিণচড়া ইউনিয়নের পুর্ব হরিণচড়া বটতলা বাজার এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। নিহত ইদ্রিস সেখানকার সপির উদ্দিনের ছেলে।

এ ঘটনায় আঘাতকারী হাসিকুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনাস্থলে সেও আহত হওয়ায় তাকে পুলিশ হেফাজতে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হচ্ছে। হাসিকুল একই এলাকার আমির আলীর ছেলে।

হরিণচড়া ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মাহবুব আলম জানান, সন্ধ্যার পর খবর পাই ওই এলাকায় মারামারির। শুনেছি হাসপাতালে নেয়া হয়েছে ইদ্রিস আলীকে। চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন হাসপাতালে।

স্থানীয় সুত্র জানায়, জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিলো ইদ্রিস আলী ও হাসিকুল পরিবারের মধ্যে। ইদ্রিস আলীর গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে মারামারির সুত্রপাত হলে হাসিকুল বাঁশের লাঠি দিয়ে ইদ্রিসের মাথায় আঘাত করেন। তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেন এলাকাবাসী।

ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার (আরএমও) তপন কুমার রায় বলেন, মৃত অবস্থায় রোগীকে নিয়ে আসা হয়েছিলো হাসপাতালে। প্রয়োজনীয় পরীক্ষা নিরিক্ষা শেষে তাকে সাড়ে ছয়টার দিকে মৃত বলে ঘোষণা দেয়া হয়।
আরএমও বলেন, আরেক রোগী হাসিকুলকে নিয়ে আসা হলে আমরা তাকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করি।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ডোমার থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মাহমুদ উন নবী বলেন, জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিলো তাদের মাঝে। আজকে গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে মারামারির সুত্রপাত হলে ইদ্রিসের মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করেন হাসিকুল। এতে মারা যান ইদ্রিস।

তাৎক্ষনিক ভাবে হাসিকুলকে গ্রেফতার করা হয় এবং মারামারির ঘটনায় তিনিও আহত হওয়ায় রংপুরে মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হচ্ছে পুলিশ হেফাজতে। বৃদ্ধর মৃতদেহ হাসপাতাল থেকে থানায় নেয়া হয়েছে।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here