পিরোজপুরে বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের খসড়া অনুমোদন দেওয়ায় র‌্যালি

 

 

আল-আমিন হোসাইন, নাজিরপুর (পিরোজপুর) প্রতিনিধিঃ

পিরোজপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের খসড়া আইন মন্ত্রীসভায় নীতিগতভাবে অনুমোদন হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিমকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে পিরোজপুরে আনন্দ মোটর হোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার ১২ জানুয়ারী দুপুরে কয়েক হাজার মোটর সাইকেল এর বিশাল আনন্দ শোভাযাত্রা শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পিরোজপুরের সাধারণ জনগণের ব্যানারে অনুষ্ঠিত মোটর শোভাযাত্রায় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে প্লাকার্ড বহন করা হয়। এ সময় পিরোজপুর-১ আসনের এমপি এবং মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ. ম রেজাউল করিম উপস্থিত ছিলেন।

এসময় নেতা কর্মীরা বর্তমান সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের শ্লোগান দেন এবং পিরোজপুরে বিশ^বিদ্যালয়ের অনুমোদন হওয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে শ্লোগান দিতে থাকেন। এ বিষয়ে পিরোজপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি মুনিরুজ্জামান নাসিম আলী জানান, পিরোজপুর জেলার ইতিহাসে এ পর্যন্ত যত কাজ হয়েছে তার মধ্যে এটি একটি সর্বশ্রেষ্ঠ কাজ। শেরেবাংলা এ কে ফজলুল হক এ এলাকায় শিক্ষা বিস্তারে যে অবদান রেখেছেন সে অবদানের সাথে পিরোজপুর-১ আসনের এমপি এবং মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিমের নামটি যুক্ত হলো। আমরা ধন্যবাদ জানাই মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিমকে।

পিরোজপুর সরকারী সোহরাওয়ার্দী কলেজের সাবেক ভিপি ও পিরোজপুর সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান এস এম বায়েজিদ জানান, পিরোজপুর-১ আসনের এমপি এবং বর্তমান মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী পিরোজপুরের উন্নয়নে যে ভূমিকা রাখছেন তার অন্যতম দৃষ্টান্ত হলো পিরোজপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন। আর এ উন্নয়নের জন্য পিরোজপুরবাসী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করবে।

আনন্দ মটোর শোভাযাত্র শেষে এ বিষয়ে পিরোজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য এবং মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেন, মন্ত্রীসভায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় অনুমোদন লাভ করায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি। উল্লেখ্য, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর নামে পিরোজপুরে একটি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের জন্য পিরোজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য এবং মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম প্রধানমন্ত্রী বরাবরে ২০১৯ সালে একটি ডিও লেটার দেন।

বিশ্ববিদ্যালয়টি স্থাপনের নীতিগত অনুমোদন দিতে ২০১৯ সালের ২৭ জুলাই মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের কাছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে এর যৌক্তিকতা সম্পর্কে জানতে চাওয়া হয়। এরই পরিপ্রেক্ষতে একই বছরের ১৫ সেপ্টেম্বর শিক্ষা মন্ত্রণালয় পিরোজপুর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করা যেতে পারে বলে সায় দেয়। এ লক্ষ্যে ‘পিরোজপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় আইন, ২০২০’ এর খসড়া প্রণয়ন করেছে সরকার। গত সোমবার (১১ জানুয়ারী) এটি মন্ত্রীসভায় নীতিগতভাবে অনুমোদন হয়। বর্তমানে দেশে ৪৬টি সরকারি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। এটি প্রতিষ্ঠিত হলে মোট ৪৭টি সরকারি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় হবে।