প্রবাসীর সাথে বিয়ের নাটক সাজিয়ে ২৬ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে কনেসহ বাবা মা আটক

 

জয়পুরহাট সংবাদদাতাঃ

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সৌদি প্রবাসীর সাথে বিয়ের নাটক সাজিয়ে ২৬ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে জয়পুরহাটে পাঁচবিবিতে কনে ও তার বাবা-মাকে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার গভীর রাতে পাঁচবিবি উপজেলার মালঞ্চা গ্রাম থেকে ওই ৩ জনকে পুলিশ আটক করে। আটককৃতরা হলেন- জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার মালঞ্চা গ্রামের অবসর প্রাপ্ত পুলিশ সদস্য ইমদাদুল হক (৫৭), তার স্ত্রী রুবিনা বেগম ও তাদের মেয়ে কথিত বিয়ের কনে শবনম মুস্তারী এমি।

ঘটনার বিবরণে ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়, এমি’র সাথে ফেসবুকে পরিচয় হয় লক্ষীপুরের রায়পুর উপজেলার দক্ষিন চর মোহনা গ্রামের কাজী আয়াতুল্লার ছেলে সৌদি প্রবাসী যুবক কাজী হারুন সাগরের। এক পর্যায়ে তাদের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরে মোবাইলের ভিডিও কনফারেন্সের এর মাধ্যমে বিয়ের নাটক সাজিয়ে দীর্ঘ ৪ বছরে সৌদি আরব থেকে ওয়েষ্টার্ন ইউনিয়ন ও বিকাশের মাধ্যমে ওই সৌদি প্রবাসী যুবকের কাছ থেকে ২৬ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয় এমি ও তার মা-বাবা।

গত ১৫ ডিসিম্বর দেশে ফিরে জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার মালঞ্চা গ্রামে কথিত শ্বশুর বাড়ি আসলে এমি ও তার মা-বাবা ওই বিয়ের কথা অস্বীকার করলে প্রমানাদিসহ পাঁচবিবি থানায় মামলা দায়ের করেন ওই প্রবাসী যুবক। প্রাথমিক তদন্তে অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় পুলিশ বাবা, মা ও মেয়েকে তাদের নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে।
পাঁচবিবি থানার অফিসার ইনচার্জ ফরিদ হোসেন করে জানান, ঘটনার সত্যতা স্বীকার পাওয়ায় আটককৃতদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে এবং তাদেরকে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।