সার্ক শীর্ষ সম্মেলন নিয়ে ফের অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। প্রতি বছর নভেম্বর মাসে এই সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হয়ে থাকলেও এ বছর এখন পর্যন্ত বিষয়টি নিয়ে কোনো তৎপরতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে না।

এ নিয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে।

এর আগে সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে গতবার ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান নিজেদের প্রত্যাহার করে নেয়। এদিকে গতবারের মতো ভারত এবারও সার্ক সম্মেলন নিয়ে তাদের অনাগ্রহ প্রকাশ করেছে। নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনের ফাঁকে সার্ক দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের এক বৈঠকে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ সার্ক শীর্ষ সম্মেলন নিয়ে তার দেশের অনাগ্রহের কথা জানিয়েছেন।

এছাড়া সার্কের বিকল্প হিসেবে এরই মধ্যে ভারত নিজেদের বিমসটেকে সক্রিয় করছে। বাংলাদেশ, ভুটান ও নেপালকে নিয়ে বিবিআইএন নামের প্রকল্প দাঁড় করছে দেশটি।

মূলত ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের অবনতির প্রভাব পড়ছে বাংলাদেশের উদ্যোগে গঠিত দক্ষিণ এশীয় এ ফোরামের ওপর। সার্ক পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকে সুষমা স্পষ্ট জানিয়ে দেন, সার্ক তার লক্ষ্য পূরণে ব্যর্থ হয়েছে। উন্মুক্ত বাণিজ্য কিংবা বাণিজ্য-সংক্রান্ত চুক্তি না থাকায় সংস্থাটি তার কার্যকারিতা হারিয়েছে। তবে তিনি সার্ক শীর্ষ সম্মেলন হবে না এমন প্রসঙ্গ আনেননি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here