বগুড়া প্রতিনিধি :

ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কের সীমাবাড়ী বগুড়া বাজার এলাকা থেকে গত সোমবার রাতে কোরবানীর গরু বোঝাই ট্রাক অভিনব কায়দায় ডাকাতি করে নিয়ে যায়। এসময় ট্রাক চলে গেলেও ওই রাতেই স্থানীয়দের সহযোগীতায় ২ ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। আটককৃতরা হলো ঃ ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা উপজেলার আট্টাভাষা গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে লাল মিয়াকে(৩২),নওগাঁ জেলার মান্দা উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামের আজিজার রহমানের ছেলে জহুরুল ইসলাম (৪২)।
জানা যায়, লক্ষীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামের আব্দুর রউফ শেখের ছেলে শাহ আলম গত সোমবার নওগাঁর মান্দা উপজেলার ৪টি হাট থেকে ১৪ গরু কিনে বেলা ৩টার দিকে ট্রাক লোড করে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। গরু বোঝাই ট্রাকটি নিয়ে একই দিনের রাত সাড়ে ১০টার বগুড়ার শেরপুরের সীমাবাড়ী বগুড়া বাজার এলাকায় পৌছিলে ট্রাকটি নষ্ট হয়েছে মর্মে চালক গাড়িটি থামায়। কিছুক্ষণ পরে ট্রাকের পেছনেই একটি মাইক্রোবাস থেকে লোক নেমে বিকল ট্রাক মেরামতের কথা বলে। মাইক্রোবাসের যাত্রী একজন ট্রাক চালক হয়ে স্টিয়ারে বসে মুল চালকসহ অন্যান্যদের পিছন থেকে ট্রাকটিকে ধাক্কা দিতে বলে এবং ধাক্কার এক পর্যায়ে ট্রাকটি চালু করে দ্রুত পালিয়ে যায়। এদিকে ট্রাকের পেছনে মাইক্রোবাসের অন্য আরোহীরা গরুর মালিক শাহ আলম, রাখাল বিদ্যুৎ ও জুয়েলকে লোহার রড দিয়ে শরীরে আঘাত এবং গলায় গামছা পেচিয়ে তাদের হত্যার চেষ্টা করে। তাদের চিৎকারে স্থানিয় লোকজন এগিয়ে আসলে তাদেরকে ছেড়ে দিয়ে ডাকাতদল পালিয়ে যাওয়ার সময় ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা উপজেলার আট্টাভাষা গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে লাল মিয়াকে আটক করে। এসময় থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ওই ডাকাত এবং পরবর্তীতে নওগাঁ জেলার সুতিহাট এলাকার ট্রাক,ট্যাংকলরী বন্দোবস্তকারী সমিতির সদস্য মান্দা উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামের আজিজার রহমানের ছেলে জহুরুল ইসলামকে ট্রাক ভাড়া করে দেয় এবং ডাকাতির সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে তাকে মোবাইল ফোনে ডেকে এনে গ্রেফতার করে। এঘটনায় শেরপুর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ খান মোঃ এরফান বলেন- ডাকাতি হওয়া গরুবোঝাই ট্রাকটি উদ্ধারের চেষ্ট চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here