কাজী মাহমুদ কবির, বাগেরহাট  :
ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার ফলতিতা মাছের আড়ৎ সড়ক পাশে  দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকের সাথে যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় দুইযাত্রী নিহত হয়েছেন। এ সময় আরও কমপক্ষে ১০ জন বাসযাত্রী আহত হন। আহতদের খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শনিবার সকালে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই দুইজনের মৃত্যু হয়। নিহতরা হলেন মোড়েলগঞ্জ উপজেলার দৈবজ্ঞ্যহাটি এলাকার নাছির উদ্দিন তালুকদারের মেয়ে নাসরিন আক্তার(২৬) এবং একই উপজেলার বলইবুনিয়া গ্রামের রুস্তুম সেখের ছেলে মনির সেখ (৪০)। আহতদের বাড়ি বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ ও  শরণখোলা উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের বলে পুলিশ জানতে পেরেছে।  শনিবার ভোর সাড়ে তিনটার দিকে বাগেরহাট-মাওয়া মহাসড়কের ফকিরহাট উপজেলার ফলতিতা মাছের আড়ৎ এর সামনে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে। বাগেরহাটের কাটাখালী মহাসড়ক পুলিশের এসআই সাফুর আহমেদ জানান, ঢাকা থেকে বাগেরহাটের শরণখোলার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা বনফুল পরিবহণের একটি যাত্রীবাহী বাস ফকিরহাটের ফলতিতা এলাকায় পৌছে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দাঁড়িয়ে থাকা অপর একটি গাছবোঝাই  ট্রাকের পেছনে ধাক্কা দেয়। এতে নারী শিশুসহ কমপক্ষে ১২জন গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয় লোকজন, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা তাদের আশংকাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে ফকিরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এখানে ৫ জনের অবস্থার অবনতি হলে তাদের খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। এদের মধ্যে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নাসরিন আক্তার ও মনির সেখের মৃত্যু হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here