ভারতের বিপক্ষে টাইগারদের ‘ডু অর ডাই’ ম্যাচ আজ

মেহেদী হাসান: 

ভাল পারফরমেন্স করা সত্ত্বেও বিশ্বকাপে কঠিন এক পরিস্থিতির মুখে দাঁড়িয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। সেমিফাইনালে খেলার আশা বাঁচিয়ে রাখতে দ্বাদশ বিশ্বকাপে নিজেদের অষ্টম ম্যাচে শক্তিশালী ভারতের বিপক্ষে জয় ছাড়া আর কোন উপায় নেই বাংলাদেশের। ভারতের বিপক্ষে জিতলেই জয়ের আশা বেঁচে থাকবে, আর হেরে গেলে লিগ পর্ব থেকেই এবারের বিশ্বকাপ পর্ব শেষ করতে হবে বাংলাদেশকে।

 

জয় ছাড়া অন্য কোন পথ খোলা না থাকায়, ভারতের বিপক্ষে নিজেদের সেরাটা দিয়ে ম্যাচ জয় করাই এখন একমাত্র লক্ষ্য মাশরাফি বাহিনীর। এমন লক্ষ্য নিয়ে আজ মঙ্গলবার বার্মিংহামের এডজবাস্টনে ভারতের বিপক্ষে খেলতে নামবে টাইগাররা। বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩টা ৩০ মিনিট শুরু হবে ম্যাচটি। গত রোববার ভারতের বিপক্ষে ইংল্যান্ডের জয়ে বাংলাদেশের সামনে কঠিন এক সমীকরণ দাঁড়িয়েছে। লিগ পর্বে নিজেদের শেষ দুই ম্যাচে তো জিততেই হবে। সেই সাথে লিগ পর্বে ইংল্যান্ড শেষ ম্যাচে হারতেই হবে। এই হিসাব-নিকাশ মিলে গেলেই প্রথমবারের মত বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে খেলার আশা পূরণ হবে বাংলাদেশের।

 

লিগ পর্বে বাংলাদেশের শেষ দুই ম্যাচ ভারত ও পাকিস্তানের বিপক্ষে। ৭ খেলায় ৩টি করে জয়-হারে ও ১টি পরিত্যক্ত ম্যাচে ৭ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের ষষ্ঠস্থানে বাংলাদেশ। শেষ দুই ম্যাচ জিতলে বাংলাদেশের পয়েন্ট হবে ১১। আর যদি ইংল্যান্ড নিজেদের শেষ ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরে যায় তবে স্বাগতিকদের পয়েন্ট থাকবে ১০-এ। সেক্ষেত্রে পয়েন্ট টেবিলের চতুর্থস্থানে উঠে যাবে বাংলাদেশ। তাদের উপরে থাকবে অষ্ট্রেলিয়া- ভারত-নিউজিল্যান্ড। বাংলাদেশ চতুর্থস্থান দখল করে সেমিফাইনালে খেলবে। আর পঞ্চম ও ষষ্ঠস্থানে থেকে লিগ পর্ব থেকে বিশ্বকাপ শেষ করবে যথাক্রমে স্বাগতিক ইংল্যান্ড ও পাকিস্তান। এ জন্য সবার আগে শেষ দুই ম্যাচে জিততেই হবে বাংলাদেশকে। সেই সাথে ইংল্যান্ডের হার কামনা করা ছাড়া আর কোন উপায় নেই টাইগারদের।

 

আর যদি ইংল্যান্ড নিজেদের শেষ ম্যাচ জিতে যায় তবে তারা সেমিফাইনালে চলে যাবে। পাশাপাশি বাংলাদেশ দু’টি ম্যাচ জিতে আর ভারত যদি অন্তত আরও এক পয়েন্ট পেয়ে যায় তবে নিউজিল্যান্ডের সাথে টাইগাররে পয়েন্ট সমান হবে। তখন রান রেটে হিসেব করতে হবে। বর্তমানে রান রেটে নিউজিল্যান্ডের চেয়ে পিছিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ। শেষ দুই ম্যাচের রান রেট বেড়ে গেলেই নিউজিল্যান্ডকে টপকানো সম্ভব হবে বাংলাদেশের। তবে রান রেট বা অন্য সমীকরনে না যেতে চাইলে নিজেদের শেষ দুই ম্যাচ জিততেই হবে বাংলাদেশকে। পাশাপাশি শেষ ম্যাচে ইংল্যান্ডের হার কামনা করত হবে টাইগারদের। তবেই সেমিফাইনালে পা দিবে মাশরাফির দল।