মুক্তি পেলেন খালেদা জিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক:

 

সরকারের দেওয়া শর্তের ভিত্তিতে মুক্তি পেলেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। দুই বছর দেড় মাস (৭৭৫ দিন) কারাভোগের পর শর্তসাপেক্ষে তিনি তার বাস ভবনে ফিরে যাচ্ছেন।

বুধবার (২৫ মার্চ) আড়াইটার দিকে বিএসএমএমইউতে কারা কর্মকর্তা চিঠি নিয়ে যান। পরে তিনি মুক্তি পান। বিএনপি চেয়ারপারসনের একান্ত সচিব আব্দুস সাত্তার বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে নিতে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ পরিবারের সদস্যরা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে যান।

খালেদার জিয়ার ভাই শামিম ইস্কান্দারের গাড়িতে করে তাকে গুলশানের ফিরোজাতে নেয়া হচ্ছে।

এদিকে দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে বাসায় নিতে বিকাল তিনটার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে পৌঁছান তার পরিবারের সদস্যরা। সঙ্গে ছিলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরও।

এ সময় খালেদা জিয়াকে নিয়ে যাওয়ার জন্য কয়েকটি গাড়িও প্রবেশ করে।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ১৭ বছরের কারাদণ্ড নিয়ে ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে কারাবন্দি খালেদা জিয়া। তাকে পুরান ঢাকার পরিত্যক্ত কেন্দ্রীয় কারাগারে বিশেষ কারাগার স্থাপন করে সেখানে রাখা হয়। গত বছরের এপ্রিল থেকে তিনি বিএসএমএমইউতে চিকিৎসাধীন।

এদিকে গতকাল মঙ্গলবার আইনমন্ত্রী আনিসুল হক জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ছয় মাসের জন্য সাজা স্থগিত করে দুটি শর্তে খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেয়া হচ্ছে। সেগুলো হলো, এই সময়ে তার ঢাকায় নিজের বাসায় থাকতে হবে এবং তিনি বিদেশে যেতে পারবেন না।

এ বিষয়ে এক প্রশ্নের উত্তরে আজ বুধবার অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, শর্ত ভঙ্গ করলে খালেদার জামিন বাতিল হবে।