আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

 

মেয়ের হাত ধরে দাঁড়িয়ে রয়েছেন তিনি। পেছনে পরমাণু অস্ত্রবাহী হোয়াসং সিরিজের ক্ষেপণাস্ত্র। শুক্রবার (১৮ নভেম্বর) জাপানের উপকূলে যেটি নিক্ষেপ করে উত্তেজনার আঁচ উস্কে দিয়েছে উত্তর কোরিয়া,ব্যক্তিগত জীবনকে বরাবরই গোপনীয়তায় ঢেকে রাখতে পছন্দ করেন উত্তর কোরিয়ার একনায়ক কিম জং উন। কিন্তু এই প্রথমবার তাকে প্রকাশ্যে দেখা গেলো মেয়ের সঙ্গে।

দেশটির সরকারি সংবাদমাধ্যম ‘কোরিয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি’ শুক্রবার একটি ছবি প্রকাশ করেছে। তাতে দেখা যাচ্ছে কোনো একটি ক্ষেপণাস্ত্র ঘাঁটিতে মেয়ে জুয়ের হাত ধরে দাঁড়িয়ে রয়েছেন তিনি। এর আগে কখনও কিম কন্যাকে সামনে আসতে দেখেননি উত্তর কোরিয়াবাসী।

ধারাবাহিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার জেরে গত দুই মাস ধরে উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান এবং আমেরিকার সঙ্ঘাতের আবহ তৈরি হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে ৯ বছরের কন্যাকে নিয়ে কিমের প্রথমবার প্রকাশ্যে আসা ‘তাৎপর্যপূর্ণ’ বলে মনে করা হচ্ছে।

যুক্তরাজ্যের গার্ডিয়ান পত্রিকা কয়েক বছর আগে কিমের ঘনিষ্ঠ আমেরিকার বাস্কেটবল খেলোয়াড় ডেনিস রোডম্যানকে উদ্ধৃত করে প্রথম জানিয়েছিলো, ২০১৩ সালে জুয়ের জন্মের কথা। কিন্তু শুক্রবারের আগে কখনও প্রকাশ্যে দেখা যায়নি তাকে।

কিমের বিয়ের বেশ কিছুদিন পর সরকারিভাবে উত্তর কোরিয়া তা ঘোষণা করেছিলো। ২০১১ সাল থেকে উত্তর কোরিয়ার একনায়কের পাশে এক নারীকে মাঝে মধ্যে দেখা যেতে শুরু করেছিলো। তারপর জানা যায় যে, তিনি রি সল-জু। কিমের স্ত্রী। অর্থাৎ উত্তর কোরিয়ার ফার্স্ট লেডি। কিছুদিন পর কয়েকটি পশ্চিমা সংবাদমাধ্যম দাবি করেছিলো, ২০১০ সালে কিম দম্পতির একটি সন্তান হয়। যদিও তাকে এখনও প্রকাশ্যে দেখা যায়নি। ২০১৭ সালে কিমের পুত্রসন্তান লাভের ‘খবর’ প্রচারিত হলেও তার সত্যতা এখনও জানা যায়নি।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here