রাণীশংকৈলে আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হলো জেলা ইজতেমা

আনোয়ার হোসেন জীবন রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) :

 

আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হলো ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈলে ৩দিনব্যাপী জেলা ইজতেমা । শনিবার ২৪ আগস্ট ঘন্টাব্যাপী এই আখেরি মোনাজাতে অংশগ্রহনের জন্য দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে হাজার মানুষ ছুটে আসেন রাণীশংকৈল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে । ভেপসা গরমকে উপেক্ষা করে এই মোনাজাতে শান্তিপূর্ণভাবে আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে সা’দ পন্থী তাবলীগ জামাতের জেলা ইজতেমার বয়ানের সমাপ্তি হয়।

গত বৃহস্পতিবার ফজরের নামাযের পর হতে বয়ানের মধ্য দিয়ে এ ইজতেমা শুরু হয়। শনিবার সকাল সাড়ে ১১টার সময় আখেরী মোনাজাত হয়। আখেরী মোনাজাত করেন মাওলানা মোশারফ হোসেন। এ সময় কয়েক হাজার মুসুল্লী অংশ গ্রহন করেন।
মাওলানা মোশারফ হোসেন মোনাজাতে দেশ ও দশের মঙ্গল কামনা করেন। সেইসংগে তাবলীগ নিয়ে এক শ্রেণীর মানুষ ছিনিমিনি খেলছেন তাদেরকে সঠিক পথে ফিরিয়ে আনার জন্য দোয়া করেন।

জেলায় তাবলীগের দু’টি অংশ সক্রিয় আছেন। একটি হচ্ছে “সা’দ গ্রুপের অংশ” অন্যটি “জোবায়ের গ্রুপের”।
আজ(শনিবার) সাদ গ্রুপের তিন দিনের জেলা ইজতেমা সমাপ্তি হলো।

অন্যদিকে জেলা শুরু হওয়ার আগে তাবলীগ জামাতের আরেকাংশ ওই ইজতেমার বিরোধীতা করে মানব বন্ধনসহ মিটিং মিছিল করেন। কিন্তু প্রাশাসনিক তৎপরতার কারনে কোন ধরনের বিশৃংখলা সৃষ্টি করতে না পারায় শান্তিপুর্ণভাবে জেলা ইজতেমার সমাপ্তি হয়।

ইজতেমায় অংশ নেয়া বালিয়াডাঙ্গীর তসলিমউদ্দীন জানান,আমাদের ইজতেমার বাইরে যারা মানববন্ধনসহ মিছিল মিটিং করছে তারা ফেতনা সৃষ্টিকারী।এসব ফেতনা সৃষ্টিকারীরা সফল হতে পারে নাই।আলহামদুলিল্লাহ, সফলভাবে ইজতেমা সমাপ্ত করতে পেরেছি।