শিকাগোতে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ৬, আহত ২৯

 

 

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

 

যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো শহরে অজ্ঞাত বন্দুকধারীর গুলিতে অন্তত ৬ জন নিহত হয়েছেন। এই ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন ২৯ জন। চারঘণ্টা ধরে শহরের দুই এলাকায় হামলা চালিয়েছে বন্দুকধারী। পরে পুলিশের গুলিতে তার মৃত্যু হয়।

স্থানীয় সময় রোববার (১০ জানুয়ারি) মধ্যরাতে শহরটির এভান্সটনের কয়েকটি এলাকায় এই হত্যাকাণ্ড চালানো হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

শনিবার দুপুর থেকে শহরের বিভিন্ন প্রান্তে তাণ্ডব শুরু করে অজ্ঞাত সেই বন্দুকধারী। আচমকা শহরের একাধিক এলাকায় গুলি চালায় সে। বিভিন্ন বয়স, পেশার মানুষকে আক্রমণ করে। হামলাকারীর মানসিক অবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে পুলিশ।

প্রথমে এই বন্দুকধারী শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে হামলায় চালায়। তার ছোড়া গুলিতে এক ছাত্রের মৃত্যু হয়। পুলিশ জানায়, পার্কিং লটে নিজের গাড়িতে বসেছিলেন ওই ছাত্র।

এরপর একটি অ্যাপার্টমেন্টে ঢুকে পড়ে হামলাকারী। সেখানকার নিরাপত্তারক্ষীকে জখম করে এবং এক বৃদ্ধাকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে তার ঘাড়ে গুলি লাগে। গুরুতর জখম অবস্থায় দুজনকেই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে আনার পর নিরাপত্তারক্ষীর মৃত্যু হয়। এরপর ঘটনাস্থল থেকে এক পরিচিত ব্যক্তির গাড়ি চুরি করে চম্পট দেয় হামলাকারী। পরে এক নাবালিকা, রেস্তোরাঁকর্মীকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে সে। এরপর গাড়ি নিয়ে পৌঁছে যায় শিকাগো সীমান্তে।

ঘটনায় হতাহতদের নাম প্রকাশ করেনি পুলিশ। তবে নিহত বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী ছাড়াও আশঙ্কাজনক অবস্থায় এক নারী ও এক শিশু হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

এদিকে হামলার পর শিকাগো সীমান্তে পার্কিং লটে পুলিশের সঙ্গে গুলি বিনিময়ে এই বন্দুকধারীর মৃত্যু হয়। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, নিহত বন্দুকধারীর নাম নাইটেঙ্গেল। কিন্তু কেন তিনি হামলা চালিয়েছেন, তা এখনো জানা যায়নি। ইতোমধ্যে হামলার ব্যাপারে তদন্ত শুরু করেছে শিকাগো পুলিশ।