আনসার আল ইসলামের ১ জন অনলাইন ফাইন্যান্সারকে আটক করেছে র‌্যাব-২

ডেস্ক নিউজ :

 

রাজধানীর রাজউক উত্তরা হাউজিং প্রজেক্ট থেকে নিষিদ্ধ ঘোষিত ইসলামী জঙ্গী সংগঠন আনসার আল ইসলামের ১ জন অনলাইন ফাইন্যান্সারকে আটক করেছে র‌্যাব-২। বিপুল পরিমাণ উগ্রবাদী বই, ট্রেনিং ম্যানুয়াল, ইলেকট্রনিক ডিভাইস উদ্ধার করেছে র‌্যাব-২ ।

নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গী সংগঠন জেএমবি ও আনসার আল ইসলামের বেশ কিছু সদস্য আত্মগোপণে থেকে তাদের সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছে। র‌্যাব সহ অন্যান্য আইন শৃংখলা বাহিনীর কঠোর গোয়েন্দা ও সাইবার নজরদারির ফলে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গী সংগঠনের কার্যক্রম অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে।

৩০/০১/২০২০ খৃঃ ও ১৩/২/২০২০ খৃঃ মুন্সিগঞ্জ, সিলেট এবং ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ খৃঃ পাবনা জেলার সদর থানা হতে ক) মোঃ আবু রায়হান লিমন, খ) সাইফুল্লাহ নাঈম ও গ) নাবিল চোকদার, ঘ) শাফাত আহাম্মদ চৌধুরী @ সাফাত, ঙ) সাকিব আল ইমতিহান ও চ) নাজমুস সাদাত ফাহিম নামধারী নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলাম বা আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের আত্মঘাতী ৬ সদস্যকে আটক করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-২।

তারই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-২ মামলাটির তদন্ত কার্য পরিচালনা কালে গোপণ তথ্য মতে রাজধানীর রাজউক উত্তরা হাউজিং কমপ্লেক্স এর ভবন নং-১১/ডি এর ১৩০৫ নং ফ্ল্যাট এ ৩০ মার্চ, ২০২০ খৃঃ ১১ঃ০০ ঘটিকা থেকে ১৪ঃ০০ ঘটিকা পর্যন্ত অভিযান পরিচালনা করে মুহিব মুশফিক খান (১৯), পিতাঃ খান মোঃ মাঈনুল হককে গ্রেফতার করা হয়।

মুন্সিগঞ্জ, সিলেট ও পাবনা থেকে গ্রেফতার হওয়া ৬ জঙ্গির কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে মুহিব মুশফিককে নজরদারিতে রেখেছিল র‌্যাব এর আভিযানিক দল। মুহিবের অবস্থান নিশ্চিত হবার পর রাজউক উত্তরা হাউজিং কমপ্লেক্স এর ভবন নং-১১/ডি এর ১৩০৫ নং ফ্ল্যাট এ ৩০ মার্চ, ২০২০ খৃঃ সোমবার অভিযান চালিয়ে তার হেফাজত হতে ১৩ টি উগ্রবাদী বই, জঙ্গিদের প্রশিক্ষণ সংক্রান্ত ট্রেনিং ম্যানুয়েল, ২ টি মোবাইল সহ তার কাছ থেকে সহযোগী জঙ্গী সদস্যদের অনলাইনে অর্থ লেনদেনের প্রমাণাদি উদ্ধার করা হয়।

আটককৃত মুহিব মুশফিক নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসারুল ইসলামের সাথে সরাসরি যুক্ত। অভিযানকালে তার নিকট হতে উদ্ধার হওয়া মোবাইল সহ অন্যান্য ডিভাইস হতে জঙ্গিবাদের সাথে সরাসরি সম্পৃক্ততা ও তার সহযোগী সদস্যদের অর্থ সহযোগীতার অকাট্য প্রমাণ পাওয়া গেছে। ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ, টেলিগ্রাম ও ম্যাসেঞ্জার গ্রুপের মাধ্যমে তারা জঙ্গিবাদের বিস্তার ঘটাচ্ছিল। ধৃত আসামী মুহিব মুশফিক তার সহযোগীদের অর্থ সহযোগীতার মাধ্যমে উৎসাহ যুগিয়ে বড় ধরণের নাশকতার পরিকল্পনা আঁটছিলো।

আসামী উক্তরূপ কার্য দ্বারা ধর্ম ভীরু সহজ সরল ও শান্তিপ্রয় যুবতীদেরকে টার্গেট করে উগ্রবাদী কার্যক্রমে সম্পৃক্ত সহ নাশকতা সৃষ্টিতে উদ্ভুদ্ধ করে দেশের আইন শৃঙ্খলা বিনষ্ট, জনসংহতি, নিরাপত্তা ও জনমনে ত্রাস সৃষ্টির প্রয়াস চালিয়ে আসছিল। ধৃত আসামীদ্বয় মুন্সিগঞ্জ জেলার মুন্সিগঞ্জ সদর থানার মামলা নং-৬৬ তারিখ-৩০/০১/২০২০ ইং, ধারা- সন্ত্রাস বিরোধী আইন ২০০৯ (সংশোধনী /২০১৩) এর ৬ এর (২)/৮/৯/১০/১২/১৩ আইনে দায়েরকৃত মামলার এজাহার নামীয় আসামী হওয়ায় তাকে বিজ্ঞ আদালত সোপর্দ করা হবে।

উক্ত ঘটনায় জড়িত জঙ্গী সংগঠনের পলাতক সদস্যদের গ্রেফতারে র‌্যাব এর অভিযান অব্যাহত আছে।