শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯:৫৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
নেতাকর্মীরা প্রস্তুত থাকুন, কেউ যেনো মানুষের ক্ষ‌তি কর‌তে না পা‌রে : প্রধানমন্ত্রী গাজীপুরে তুলার গোডাউনে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ৮ ইউনিট একই ইউনিয়নে ৭ টি অবৈধ ইট ভাটা গুঁড়িয়ে দিয়েছে পরিবেশ অধিদপ্তর টাঙ্গাইলে জিমে’র আড়ালে মাদক ব্যবসা; ৩০ লাখ টাকার হিরোইনসহ নারী আটক তোফাজ্জল হোসেন মিয়াকে প্রধানমন্ত্রীর মূখ্য সচিব নিয়োগ প্রদান করায় ভাণ্ডারিয়ায় দোয়া ও মোনাজাত ১ কোটি ৫৩ লাখ টাকা ব্যয়ে রৌমারীতে লজিক প্রকল্পের কাজে অনিয়মের অভিযোগ সাতক্ষীরায় বঙ্গবন্ধুর মুর‍্যালে পুস্পস্তবক অর্পণ করলেন খুলনা রেঞ্জের নবাগত ডিআইজি মইনুল হক কুমিল্লায় তৈরি হলো দেশের সর্বাধুনিক কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন রোবট টঙ্গীতে এশিয়ান ও আনন্দ টিভির সাংবাদিকের উপর হামলা ভোলা-লক্ষ্মীপুর নৌরুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ

সরকারি নিয়মের তোয়াক্কা না করে কুষ্টিয়া হাইস্কুলের দেড়শো বছরের পুকুর ভরাট চলছে

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ৩ অক্টোবর, ২০২২
  • ৮ Time View

 

 

হাসনাত রাব্বু, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি :

সরকারি নিয়মের তোয়াক্কা না করে জেলার ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কুষ্টিয়া হাইস্কুলের পুকুর ভরাট করা হচ্ছে। পুকুরটির আয়তন প্রায় তিন একর। এদিকে ১৯৯৫ সাল ও ২০১০ সালের পরিবেশ সংরক্ষন আইন অনুযায়ী, যেকোনো ধরনের জলাশয় ভরাট করা নিষিদ্ধ। জলাধার সংরক্ষণ আইন অনুযায়ী, কেউ আইনের বিধান লঙ্ঘন করলে অনধিক ৫ বছরের কারাদণ্ড বা অনধিক ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা যাবে। শাস্তি প্রদানের পাশাপাশি আইন অমান্যকারীর নিজ খরচে সেটা আগের অবস্থায় ফিরিয়ে দেওয়ার বিধানও রয়েছে। তবে অপরিহার্য জাতীয় স্বার্থে অধিদপ্তরের অনুমোদন ক্রমে শর্ত শিথিল করা যেতে পার বলে আইনে উল্লেখ আছে।

এ বিষয়ে কুষ্টিয়া পরিবেশ অধিদপ্তরের উপপরিচালক মোহাম্মদ আতাউর রহমান বলেছেন, পুকুর ভরাট বিষয়ে কুষ্টিয়া হাইস্কুল কর্তৃপক্ষ পরিবেশ অধিদপ্তরের কোন অনুমতি নেন নি আর অনুমতি দেওয়ারও কোন সুযোগ নেই।বিষয়টি জানলাম।তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেলে আইনগত ব্যবস্হা গ্রহন করা হবে। কুষ্টিয়া হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক খলিলুর রহমান ভরাটের বিষয়ের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, “আমরা পুকুর নয়,খেলার মাঠ ভরাট করছি।

উল্লেখ্য ১৮৬১ সালে সাড়ে ১২ একর জমির উপর গড়ে উঠে কুষ্টিয়া জেলার অন্যতম প্রাচীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কুষ্টিয়া হাই স্কুল। ভুমি রেকর্ড বিভাগের সূত্র মতে, সিএস রেকর্ডীয় ৩টি দাগে ১২ দশমিক ৩৫ একর, এসএ রেকর্ডীয় ৪টি দাগে ১০ দশমিক ৭৬ একর এবং সর্বশেষ আরএস খতিয়ান ভুক্ত ১৪টি দাগে ৮ দশমিক ৩ একর জমির মালিক কুষ্টিয়া হাইস্কুল। তবে বর্তমানে অস্তিত্ব সংকটে ভূগছে বিদ্যালয়টি। বিদ্যমান ভু-সম্পত্তি এখন দুই তৃতীয়াংশে দাঁড়িয়েছে আশপাশের দখলবাজদের আগ্রাসনে।

এছাড়াও স্কুল পরিচালনা কমিটি কর্তৃক যত্রযত্র মার্কেট নির্মাণের ফলে এটি একটি বানিজ্যিক প্রতিষ্ঠানে পরিনত হয়েছে। কোটি কোটি টাকার অর্থ বানিজ্য হচ্ছে মার্কেট নির্মাণে। এতে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান শিক্ষক খলিলুর রহমানসহ তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে ১ কোটি ৮  লাখ টাকার ঞ্জাত আয় বহির্ভূত সম্পদ আহরনের অভিযোগ এনেছেন দূর্নীতি দমন কমিশন।চলতি বছরের ৮মার্চ তাদের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন দুদকের কুষ্টিয়া অঞ্চলের উপপরিচালক মোহাম্মদ জাকারিয়া।

 

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

এই সাইটের কোন লেখা কপি পেস্ট করা আইনত দন্ডনীয়

Headlines