জাহাঙ্গীর আলম রাজু, সাভার : সাভারে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে হাসান নামের এক কলেজ ছাত্র হয়েছে। সোমবার রাতে এনাম মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়। নিহত ছাত্র উত্তরার মাইলস্টোন স্কুল এন্ড কলেজের ১ম বর্ষের শিক্ষার্থী ও আশুলিয়ার দক্ষিন বাইপাল এলাকার হারুন উর রশিদের ছেলে। নিহতের বাবা অভিযোগ করে বলেন, তার বন্ধুরা কলেজ ছাত্রকে সাভারে ডেকে এনে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে।
কলেজ শিক্ষার্থী বন্ধু ও পরিবার বলেন, সোমবার বিকেলে হাসান তার চার বন্ধুর সাথে সাভারের বিপিএটিসি এলাকায় বেড়াতে যায়। বিকেল চার টার দিকে তারা ঢাকা আরিচা মহাসড়কের বিপিএটিসি এলাকার মূল ফটকের সামনে পৌছালে সেখানে হাসানের পূর্ব পরিচিত অপর এক বন্ধুর সাথে দেখা হয়। এসময় তারা কথা-কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। অঞ্জাত পরিচয়ে বন্ধুর সাথে থাকা আরো বেশ কিছু যুবক কলেজ ছাত্রকে মেরে গুরুত্বর জখম করে ঘটনাস্থলে ফেলে রেখে চলে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায়  উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালে ভর্তি করে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত পৌনে এগারটার দিকে কলেজ ছাত্রের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে সাভার মডেল থানা পুলিশ ও র‌্যাব সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।
এব্যাপারে সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহসিনুল কাদির ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নিহতের লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। এ ঘটনায় সাভার মডেল থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও তিনি জানায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here