আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

 

পশ্চিম ইউরোপে রেকর্ড ভাঙা তাপপ্রবাহে স্পেন ও পর্তুগালে ব্যাপক প্রাণহানি ঘটছে। দুই দেশে তাপজনিত মৃত্যু ঘটেছে ১ হাজার ১৬৯ জনের। দুই দেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ তথ্য প্রকাশ করেছে।

গত ১০ থেকে ১৮ জুলাই পর্যন্ত স্পেনে তাপজনিত কারণে ৫১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে কেবল গত শুক্রবারই মৃত্যু হয়েছে ২৭৩ জনের। স্পেনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এই বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে। অপরদিকে পর্তুগালের অবস্থা আরও ভয়াবহ। সেদেশের ৭ জুলাই থেকে ১৭ জুলাই পর্যন্ত তাপজনিত কারণে মৃত্যু হয়েছে ৬৫৯ জনের।

তবে মঙ্গলবার পর্তুগালের তাপমাত্রা হ্রাস পেয়েছে। যদিও মঙ্গলবার জার্মানি, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সে তাপমাত্রার নতুন রেকর্ড সৃষ্টি হয়েছে। অত্যধিক তাপমাত্রার ফলে দাবানলের সৃষ্টি হচ্ছে। এতে তাপ আরও বেড়ে যাচ্ছে।

পর্তুগাল ও স্পেনে ভয়াবহ দাবানলের কারণে বহু মানুষ ঘরছাড়া হয়েছেন। দক্ষিণ ফ্রান্সে দাবানল ২৭ হাজার একর এলাকাজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে। দাবানলে সেদেশের প্রায় ১৪ হাজার মানুষ ঘর ছেড়ে নিরাপদ আশ্রয় নিয়েছেন। ফ্রান্সের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ১৫টি বিভাগের জন্য রেড অ্যালার্ট এবং আরও ৫১টি বিভাগের জন্য অরেঞ্জ অ্যালার্ট জারি করেছে।

কোপার্নিকাস মনিটরিং সার্ভিস জানিয়েছে, জুন ও জুলাইয়ে দাবানলের ফলে স্পেনে যে পরিমাণ কার্বন নিঃসরণ হয়েছে, তা ২০০৩ সাল থেকে দেশটিতে মোট কার্বন নিঃসরণের সমান।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here