হবিগঞ্জ করোনা ভাইরাস আক্রান্ত? রায়হান নামের এক যুবক ভর্তি

এমএ আজিজ সেলিম, হবিগঞ্জ (প্রতিনিধি ):

 

হবিগঞ্জ শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজে রায়হান আহমেদ (২৮) নামে এক যুবক করোনা ভাইরাসের আশংকায় ভর্তি হয়েছে। এ ঘটনায় শহরবাসীর মাঝে আতংক বিরাজ করছে। গতকাল রোববার দুপুর ১২টায় শহরের শায়েস্তানগর মোকামবাড়ির এলাকার আব্দুল নুরের পুত্র রায়হান সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়।

জানা যায়, ৮ই ফেব্রুয়ারী রায়হান চীন থেকে দেশে আসেন। গত দুইদিন ধরে তার শরীরে সর্দি কাশি ও ব্যাথা দেখা দিলে সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়। তাকে করোনা ভাইরাসের আশংকায় ডাক্তার ওই কলেজের ৫ম তলা করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি করা হলে তিনি কাউকে কিছু না বলে সটকে পড়েন। বিষয়টি পুলিশকে অবগত করলে সদর থানার একদল তাকে ধরে এনে আবার ভর্তি করেন। এদিকে সে বিকেলে আবার পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ তার পিতাকে বুঝিয়ে আবার মেডিকেল কলেজে ভর্তি করেন। রায়হান জানায়, আমি চীনের ডাক্তারি লেখাপড়া করি। করোনা ভাইরাসের আতংকে ৮ ফেব্রুয়ারী দেশে আসি। আমি সুস্থ আছি, কিন্তু হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ও পুলিশ আমাকে জোর করে হাসপাতালে ভর্তি রেখেছে।

এ ব্যাপারে সিভিল সার্জনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, যদি কেউ চীন থেকে দেশে আসে এবং আসার ২ সপ্তাহের মধ্যে সর্দি কাশি ও শরীর ব্যাথা হয় তাহলে সরকারের নিদের্শ অনুযায়ী তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা রাখা হয়। কিন্তু তিনি কাউকে না বলে পালিয়ে যান,তাই তাকে পুলিশ দিয়ে ধরিয়ে আনা হয়েছে। রাতে তার রক্ত ও কফ পরীক্ষার জন্য ঢাকা পাঠানো হবে। যদি পরীক্ষায় নিরীক্ষা করার পর করোনা ভাইরাসের লক্ষন না থাকে তাহলে তাকে রিলিজ দেয়া হবে।

সদর থানা ওসি মাসুক আলী জানান, হাসপাতালে ভর্তি হয়ে পালিয়ে যাওয়ায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের নির্দেশে তাকে ধরে এনে হাসপাতালে রাখা হয়েছে। বাকি যাহা করনিয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নিবেন।