সোনারগাঁও প্রতিনিধিঃ সোনারগাঁও উপজেলার বারদী এলাকায় শীত কালিন নিরাপত্তায় সোনারগাঁও থানা পুলিশের উদ্বেগে। বারদী এলাকায় কমিটি গঠন করে, কঠোর নিরাপত্তা জোর ধারের ভূমিকা রাখার নির্দেশ প্রদান করেন বারদী ইউনিয়ণের চেয়ারম্যান মো: জহিরুল ইসলাম জহিরকে। গতকাল সন্ধ্যা ৭ ঘটিকার সময় বারদী ইউনিয়ণ বাজার সংলগ্নে এক সভা কক্ষে উপসি’ত সোনারগাঁও থানাধীন তালতলা তদন্ত কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: সোহেব খাঁন (নিরস্ত্র) ও সেনারগাঁও থানার অপরেশন (ওসি) মুহাম্মদ আব্দুল জব্বার। বারদী বাজারের সন্ধ্যা কালীন কমিটি গঠন সভায় প্রতিটি ওয়ার্ডের জনপ্রতিধিদেরকে সাথে নিয়ে। উপসি’ত শ’তাধিক জনগণের উক্ত সভায় বক্তাব্যে পেশ করেন। বারদী ইউনিয়ণের চেয়ারম্যান মো: জহিরুল ইসলাম জহির বলেন, আমাদের পার্শ্ববর্তী হাড়াই হাজার ডাকাতি থানা, সেখান থেকে ডাকাত সাপ্লাই হয় সোনারগাঁও থানায়, ডাকাতদের ভয়ে সোনারগাঁও থানার মানুষ আতঙ্কে, বিশেষ করে আমার ওয়ার্ডের জনগণ নিরাপত্তাহীনতায় ভূগতে হয়। কাজেই এজন্য বারদী নৌ-পুলিশ ও থানার ওই দুই পুলিশ আমাদেরকে আগেও সহযোগীতা করেছেন বিপদে আপদে। আশাবাদী আমাদেরকে আরও সহযোগীতা করবেন। তিনি আরও বলেন, আমার এলাকায় মাদক, ইভটিজিং, সন্ত্রাস ও ভূমিদস্যু থাকতে পারবেনা এবং সে ক্ষেত্রে আমার এলাকায় সর্বক্ষণিক জনগণের পাশে থেকে রাত-বি রাতে ডিউটি করি আমিও।
সোনারগাঁও থানাধীন তালতলা তদন্ত কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: সোহেব খাঁন বলেন, বারদী এলাকায় আপনাদের নিরাপত্তার জন্য প্রতিনিয়ত দুটি সিভিল টিম একই সঙ্গে কাজ করেন। এজন্য আপনাদের প্রয়োজনীয় বিপদ সংক্ষণের জন্য আমারা আপদের পাশে আছি।
সেনারগাঁও থানার অপরেশন (ওসি) মুহাম্মদ আব্দুল জব্বার বলেন, বারদী ইউনিয়ণে চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে প্রতিটি ওয়ার্ডে ৭টি টিম ডিউটি করবে, টিমের নামের তালিকা ও টিম লিডারে নাম মোবাইল নাম্বার থানায় পৌছে দিতে হবে, আমাদের পুলিশ ডিউটি থাকা কালিন সময়ে তাদেরকে নজরধারী করে। বিশেষ করে এলাকায় চোর ও ডাকাতদেরকে আমরা হিহ্নিত করতে সক্ষম হবো জানান। তিনি আরও বলেন, বারদী এলাকার নৌ-যান চলাচলের জন্য অভিযোগ এসেছে, এজন্য নৌ-পুলিশ আ: আজিজকে কঠোর নিরাপত্তার ক্ষেত্রে অবহিত করবো জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here