Amar Praner Bangladesh

আদালতে মাহমুদুর রহমান, মওদুদ আহম্মেদ ও এম এ হালিমের নামে ১ হাজার কোটি টাকার মানহানী মামলা দায়ের

বুলবুল খান, নড়াইল প্রতিনিধি
আমার দেশ সম্পাদক মাহমুদুর রহমান, বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিষ্টার মওদুদ আহম্মেদ ও বাংলাদেশ ডেমোক্রেটিক কাউন্সিলের সভাপতি এম এ হালিমের নামে নড়াইলের আমলী আদালতে এক হাজার কোটি টাকার মানহানী মামলা দায়ের হয়েছে।
সোমবার (১২ ডিসেম্বর) দুপুরে নড়াইল জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মোস্তফা কামাল বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। বিজ্ঞ আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ জাহিদুল আজাদ মামলাটি আমলে নিয়ে নড়াইল সদর থানার অফিসার ইনচার্জকে মামলা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন।
মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, গত ১ ডিসেম্বর জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ ডেমোক্রেটিক কাউন্সিল আয়োজিত এক মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ ডেমোক্রেটিক কাউন্সিলের সভাপতি এম এ হালিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই সভায় আমারদেশ সম্পাদক মাহমুদুর রহমান তাঁর বক্তব্যে বাংলাদেশের রাষ্ট্রের নিন্দাকরণ ও সার্বভৌমত্বের বিলোপ সমর্থন, বাংলাদেশে বর্তমান রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত সরকারের প্রতি ঘৃণা বা অবজ্ঞার সৃষ্টি করে রাষ্ট্রদ্রোহ জণিত বক্তব্য প্রদান করে রাষ্ট্রদ্রোহের অপরাধ করেছেন। একই সাথে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবার সম্পর্কে এবং জননেত্রী শেখ হাসনিা সম্পর্কে আপত্তিকর ও মানহানিকর বক্তব্য প্রকাশ্যে প্রদান করেন।
এসময় ব্যারিষ্টার মওদুদ আহম্মেদ ও এম এ হালিম করতালির মাধ্যমে ওই বক্তব্যকে সমর্থন করেছেন। বক্তব্যে বঙ্গবন্ধুর ও তার পরিবার এবং প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ভাবমূর্তি ক্ষুন্নসহ এক হাজার কোটি টাকার মানহানি হয়েছে। মামলার বাদী মোস্তফা কামাল গত ১১ ডিসেম্বর নড়াইল জেলা আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে বসে মোবাইলের মাধ্যমে আসামীর বক্তব্য দেখে এ মামলাটি দায়ের করেন।
মামলায় জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইমরুল কায়েস, সাবেক সহ-সভাপতি সবুজ সাহাকে সাক্ষী করা হয়েছে।
মামলার আইনজীবি উত্তম কুমার ঘোষ জানান, আসামীদের আপত্তিকর বক্তব্যে বাদী মর্মাহত ও ব্যাথিত হয়ে  মামলাটি দায়ের করেছেন। বিজ্ঞ বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে নড়াইল সদর থানার ওসিকে মামলা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন।