Amar Praner Bangladesh

আলোচিত গায়ক নোবেলের বিরুদ্ধে জিডিও করেছিলেন স্ত্রী সালসাবিল

 

 

বিনোদন ডেস্ক :

 

এবার সংসার ভাঙতে যাচ্ছে সমালোচিত গায়ক মাইনুল আহসান নোবেলের। নোবেলকে ডিভোর্স লেটার (তালাকের নোটিশ) পাঠিয়েছেন তার স্ত্রী মেহরুবা সালসাবিল। গেল ১১ সেপ্টেম্বর এই তালাকনামা নোবেলের ঠিকানায় পাঠানো হয়েছে।

নোবেলের স্ত্রী মেহরুবা সালসাবিল গণমাধ্যমে বলেন, নোবেলের সঙ্গে সংসার করা সম্ভব না। তাকে ডিভোর্স লেটার পাঠিয়েছি। এখন যদি সে সিগনেচার করে দেয় তাহলে ডিভোর্স হয়ে যাবে। আর সিগনেচার না করলে তিন মাস পর অটোমেটিক ডিভোর্স কার্যকর হবে।

সালসাবিল বলেন, মানসিকভাবে অসুস্থ নোবেল। তিনি মাদক এবং নারীতে আসক্ত। আমাকে নির্যাতন করেছে।

জানা যায়, গেল বছরের ১২ জুলাই নোবেলের বিরুদ্ধে গুলশান থানায় জিডি করেছিলেন সালসাবিল। জিডিতে সালসাবিল উল্লেখ করেছেন, নোবেল নেশাগ্রস্ত এবং প্রতিদিন বাসায় এসে সালসাবিলকে মারধর করে। গত বছর ১৭ জুন ভোরে বিনা কারণে সালসাবিলকে মারধর করে নোবেল। ৯৯৯-এ ফোন করলে পুলিশ এসে উদ্ধার করে সালসাবিলকে। তারপর তার বাবাকে ডেকে বুঝিয়ে দেন। এরপর থেকে বাবার বাড়িতে থাকছেন নোবেলের স্ত্রী।

২০১৯ সালের ১৫ নভেম্বর মেহরুবা সালসাবিলের সঙ্গে বিয়ে করেন মাইনুল আহসান নোবেল।

ভারতীয় টিভি চ্যানেল জি বাংলার ‘সারেগামাপা’ শোয়ের মাধ্যমে পরিচিতি পান মাইনুল আহসান নোবেল। তার দরাজ কণ্ঠের গায়কী মুগ্ধ করে বাংলাদেশ এবং পশ্চিমবঙ্গের মানুষদের। কিন্তু সেই মুগ্ধতা ধরে রাখতে পারেননি তিনি। বিভিন্ন বিতর্কিত মন্তব্য করে এবং উদ্ভট সব কাণ্ড ঘটিয়ে কেবল নিন্দাই কুড়িয়েছেন।