মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৪:৪৯ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
শ্রমিক লীগের ৫৩ নং ওয়ার্ডের সভাপতি রুবেলকে হত্যার চেষ্টা : থানায় অভিযোগ অস্ত্রধারী নুর আলম নূরুকে গ্রেফতারের জন্য মানববন্ধন হলেও নূরু অধরা : প্রশাসন নিরব তিন দিনের সফরে ঢাকায় বেলজিয়ামের রানি ভূমিকম্প: তুরস্কে ও সিরিয়ায় নিহত ৫ শতাধিক উত্তরা বিজিবি মার্কেট এখন আর ডালভাত কর্মসূচিতে নেই মন্দিরে মূর্তির পায়ে এ্যাড. রফিকুল ইসলাম ও তার স্ত্রী’র সেজদা প্রতিবাদে নির্যাতন ও মামলার শিকার মোঃ জলিল রৌমারীতে অটোবাইক শ্রমিক কল্যাণ সোসাইটির অফিস উদ্বোধন যুবলীগ নেতাদের ছত্রছায়ায় কল্যাণপুরে আবাসিক হোটেলে রমরমা দেহব্যবসা তিতাসের অসাধু কর্মকর্তাদের আতাতে লাইন কাটার নামে প্রতিনিয়ত গ্রাহকদের সাথে ব্ল্যাকমেইলিং করছে প্রতারক চক্র রাজধানীর উত্তরখান থেকে ড্যান্ডি পার্টির ১৬ সদস্য গ্রেপ্তার

ইটভাটা মালিক শ্রমিকদের দুরবস্থার কথা কেউ শুনেনা

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ১০ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ৩৭ Time View

 

সামছুদ্দিন জুয়েল :

 

খোলা আকাশের নিচে অনিশ্চিয়তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ইটভাটা শিল্প, কখনো ঝড়বৃষ্টি, বা প্রশাসন এর ইটভাটা ভাঙা, আগুনে পানি দেওয়া, দ্রব্যমূল্যর দামবৃদ্ধি, শ্রমিক চাহিদা, দাদন ব্যবসার চাপ। যেনো ইট ভাটা মালিক শ্রমিকরা দুরবস্থায় জীবন যাপন করছে।

শ্রমিকদের দাবি শীত, বৃষ্টি, রোদ, দুলাবালি, আগুন, কয়লা, ময়লার মাঝে আমাদের জীবন মালিক না বাঁচলে আমরা কিভাবে বাঁচবো।

দেশের বিভিন্ন জেলায় অনুসন্ধানে জানা যায়, ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন আইন সংশোধন এবং কয়লা সমস্যা সমাধানের দাবিতে দীর্ঘদিন যাবত মানববন্ধন আন্দোলন করে আসছে দেশের বিভিন্ন জেলার ইট প্রস্তুতকারী মালিক সমিতি ও শ্রমিকগণ।

দীর্ঘদিন যাবত বিভিন্ন জেলার প্রশাসক রাজনৈতিক নেতা, এমপি, মন্ত্রী ও সরকারের কাছে মানববন্ধন মিছিল মিটিং আন্দোলন অধিকার আদায়ের সংগ্রাম করে মালিক শ্রমিক সমিতি।

ইটভাটা মালিক শ্রমিকদের দাবি, ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) আইন-২০১৩, ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন আইন, জিগজ্যাগ ইট ভাটার পরিবেশে ছাড়পত্র ও লাইসেন্স প্রাপ্তি সহ কয়লা সংকট সমাধান।

তারা আরো বলেন, আমাদের ইট ভাটার মালিক সমিতির মালিকদের দোষ কোথায়,বিভিন্ন জেলায় শত শত বৈধ ইটভাটা রয়েছে, রাজস্ব খাত, ইনকাম ট্যাক্স, নিয়ম কানুন মেনেই ইট ভাটা পরিচালনা করে আসছি। আমাদের ইট ভাটা বন্ধ থাকলে শ্রমিকসহ ভাটার মালিকেরা বিশাল হুমকির সম্মুখীন হবে। কয়লা নেই, এলসি নেই, জালানি সংকট সমাধানে ও ভাটা চালু রাখার দাবিতে আমরা মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করেছি।

দেশে কয়েক কোটি পরিবার, বিভিন্ন জেলায় লক্ষ লক্ষ শ্রমিক কাজ করে। এছাড়াও হাজার হাজার শ্রমিকদের কর্মসংস্থান গড়ে তোলা হয়েছে। তারপরও ছাড়পত্র দেওয়া হয় না। কিন্তু ভ্যাট, ইনকাম ট্যাক্স আদায় করা হচ্ছে। কয়লা আমদানিকে অগ্রাধিকার দিয়ে কয়লা সংকট দুর করতে হবে এবং ২০৩০ সাল পর্যন্ত জিগ-জ্যাগ ইট ভাটা পরিচালনার অনুমোদন চাই বলে দাবী করেন ইটভাটা মালিক শ্রমিক এবং শ্রমিকের স্বার্থে তাদের দাবি সুনিশ্চিত করার জন্য গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে আকুল আবেদন জানান মালিক শ্রমিক নেতারা।

বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জেলায় জেলা প্রশাসন এর মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর এই সকল দাবি সম্মিলিত স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।
তাতেও কোনো কাজ হয়না, কে শুনে ইটভাটা মালিক শ্রমিকদের দুরবস্থার কথা।

 

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

এই সাইটের কোন লেখা কপি পেস্ট করা আইনত দন্ডনীয়