এমন পরিস্থিতি কখনও দেখিনি : কান্নারত মুম্বাইয়ের চিকিৎসক

 

 

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

 

করোনাভাইরাস মহামারি ভয়ংকর রূপ নিয়েছে ভারতে। এমন গুরুতর অবস্থা দেখে ঘাবড়ে যাচ্ছেন চিকিৎসকরাও। মুম্বাইয়ের ভয়াবহ পরিস্থিতি সম্পর্কে বলতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েছেন তৃপ্তি গিলাদা নামের এক চিকিৎসক।

দেখে যেন মনে হচ্ছে যেন সুনামি আছড়ে পড়েছে। হাসপাতালে শয্যা নেই, রোগীদের দেওয়ার মতো পর্যাপ্ত অক্সিজেন নেই, প্রতি দিন হাসপাতালগুলোতে কোভিড রোগীর সংখ্যা উপচে পড়ছে- মুম্বাইয়ের এই ছবি তুলে ধরতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন তৃপ্তি। খবর এনডিভির

৫ মিনিটের একটি ভিডিওতে তাকে বলতে শোনা যাচ্ছে, ‘আমি আগে এ রকম পরিস্থিতি কখনও দেখিনি। আমরা খুব অসহায় হয়ে পড়ছি। বহু চিকিৎসকের মতোই আমিও আতঙ্কিত। জানি না কী করব’।

তিনি বার বার জনসাধারণকে অনুরোধ করেছেন নিজেদের যতটা সম্ভব সুরক্ষিত রাখতে। অল্পবয়সিদের সতর্কবার্তা দিয়েছেন। বাইরে বেরোলে মাস্ক ব্যবহার করতে বলেছেন। অসুস্থ বোধ করলে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তৃপ্তি। হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে ছটফট করতে থাকা রোগীর পরিস্থিতি দেখতে দেখতে তিনি ভেঙে পড়েছেন। আর সেই অভিজ্ঞতা ভাগ করে জনসাধারণের উদ্দেশে সতর্কবার্তাও দিয়েছেন মুম্বাইয়ের এই চিকিৎসক।

দেশের মধ্যে এই মুহূর্তে সবচেয়ে ভয়াবহ পরিস্থিতি মহারাষ্ট্রে। প্রতিদিন প্রায় ৬০ হাজার মানুষ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৩৫১ জনের।

কয়েকদিন ধরে বিশ্বে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে ভারতে। গত একদিনে সেখানে প্রায় তিন লাখ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে দুই হাজারের বেশি মানুষের। এমন অবস্থায় হাসপাতালের মর্গ থেকে শুরু করে শ্মশানেও মরদেহের লাইন দেখা গেছে।