Amar Praner Bangladesh

করোনাকে উপেক্ষা করে আবারো সরব শেরপুরের রেজিস্ট্রি অফিস বাজার

 

শেরপুর(বগুড়া)প্রতিনিধি :

করোনা ভাইরাসের জন্য সারাদেশ থমথমে অবস্থা বিরাজ করার কারণে করোনা নিয়ন্ত্রনে বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নিয়েছিল বাংলাদেশ সরকার। তারই অংশ হিসেবে জনসমাগম এড়াতে বগুড়ার শেরপুর রেজিস্ট্রি অফিস বাজার বারিাদুয়ারী হাটে স্থানান্তর করেন উপজেলা প্রশাসন। করোনা ভাইরাস থাকাকালীন অবস্থায় সিমিত আকারে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকল কিছু সকাল ৬ টা থেকে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত পরিচলানার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। অথচ পরবর্তি নির্দেশ না দেয়া সত্বেও গত ১৪ জুলাই রেজিস্ট্রি অফিস বাজার আবারো পুর্বের জায়গায় আনা হয়েছে। এতে করে চাপা রাস্তার দুপাশে মানুষের উপস্থিতি কাছকাছিতে পরিণত হয়েছে।

মাছ ব্যবসায়ী আনিছুর রহমান জানান, বারোদুয়ারী হাটে আমাদের ব্যবসা খুব খারাপ হচ্ছিল। তাছাড়া সেখানে আগে থেকেই কিছু দোকানী ছিল আমরা যাওয়াতে সেখানে অনেকটাই এলোমেলো অবস্থা সৃস্টি হয়েছে। তাই আবারো রেজিস্ট্রি অফিস বাজারে আমরা এসেছি।

মাংস ব্যবসায়ী আজিজুল ও রানা মন্ডল বলেন, বারোদুয়ারী হাটের মধ্যে দিয়ে মানুষের স্বাভাবিক চলাচল না থাকায় আমাদের ব্যবসা খারাপ হচ্ছিল। অনেক মাংস বেচে যাচ্ছিল। রেজিস্ট্র অফিসে বাজার থাকলে আমাদের ব্যবসা ভাল হয়। তাই করোনা ভাইরাসের কথা চিন্তা না করে আমরা এখানে আবারো এসেছি। প্রশাসনের অনুমতি আছে কিনা জানতে চাইলে তারা বিষয়টি এরিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা মো. লিয়াকত আলী সেখ জানান, প্রশাসনের পক্ষ থেকে বাজার স্থানান্তরের জন্য কোন নির্দেশ দেওয়া হয়নি। যদি কেউ সরকারের আদেশ উপক্ষো করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। এবং পুর্বের নির্দেশ অনুযায়ী বাজার বারোদুয়ারী হাটে স্থানান্তর করা হবে।