Amar Praner Bangladesh

কীটনাশক ছাড়াই সবজি চাষ

 

 

মেহেদি হাসান নয়ন, বাগেরহাট :

 

বাগেরহাট জেলার ফকিরহাট উপজেলার বেতাগায় মাছের ঘেরে পারে কীটনাশক ছাড়াই সবজি চাষ হচ্ছে।

উৎপাদিত এসব সবজি মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই চলে যাচ্ছে ঢাকায় উপজেলার বেতাগা ইউনিয়নে ঘেরের অইলে কৃষি বিভাগের”এসএসিপি (স্মলহোল্ডার এগ্রিকালচার কম্পিটিটিভনেস প্রজেক্ট) প্রকল্পের আওতায় সবজি চাষ করেছেন কৃষকরা কৃষি অফিসার সূত্রে জানা যায় উপজেলার বেতাগা ইউনিয়ন এ ৬০ হেক্টর জমিতে ‘‘এসএসিপি প্রকল্পের আয়াতে ৬০০ জন কিষাণ-কিষাণীর ঘেরে মাছ চাষ ও ঘেরের পাড়ে নিরাপদ সবজি চাষ করছেন।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার বেতাগায় প্রায় সব ঘেরের পারে সারি সারি মাচায় ঝুলছে চালকুমরা, করলা, লাউ, মিষ্টিকুমরা, বরবটি, চিচিঙ্গা, ধুন্দুল, আর শষা, পাড়ের উপরে রয়েছে ঢেঁড়স, বরবটি, পেঁপে, বেগুন, কাচা মরিচ, ডাটা, লাল শাখ, বর্ষাকালীন সবজিসহ শীতকালীন সবজি চাষাবাদ করা হচ্ছে বলে যানিয়েছেন স্থানীয় কিষাণ-কিষাণীরা,কৃষকদের সাথে কথা বলে জানা যায় প্রায় ১৪ ধরনের সবজি চাষ করছেন তারা।

এক দিন পর এক দিন সবজি তুলে পাশের বাজারে বিক্রয় করে ভাল টাকা পাছেন তারা নিরাপদ টাটকা সবজি ট্রাকে করে মাএ ৩ ঘণ্টায় পদ্মা সেতু হয়ে ঢাকার বিভিন্ন বাজারে চলে যাচ্ছে।

উপজেলার বেতাগা ইউনিয়নের পাল পাড়া গ্রামের গিয়ে দেখা যায় কৃষকের নিরাপদ টাটকা সবজি বস্তায় ভর্তি করা হচ্ছে,পাশেই ট্রাক অপেক্ষা করছে, এখানাকার ১২৫ জন কৃষকরা ২ টি পয়েন্ট তৈরি করে এক দিন পর একদিন প্রয় ৪০০ মণ সবজি বিক্রয় করছেন।

এ সময় বাজারে পয়েন্টে প্রশিক্ষণ অফিসার মোঃ মোতাহার হোসেন ও উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ নাসরুল মিল্লাতকে পরিদর্শন করতে দেখা যায়, জীবনপাল, অনিমেষ পাল, প্রমীল পাল সহ অনেক কৃষক জানান ঘেরের পাড়ে সবজি উৎপাদন খরচ মাত্র ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকা আর উৎপাদিত ফসল প্রায় ১ লাখ ২০ হাজার টাকা বিক্রয় করেন, পালপাড়া বাজার চলতি মৌসুমে ৪৭ দিনে কৃষকরা ৪০ লাখ টাকার সবজি বিক্রয় করেছেন।

তারা আরো ৬০ দিন নিয়মিত সবজি বিক্রয় করবেন বলে জানান, এছাড়াও আগামী শীতকালীন সবজি কিছু দিনের মধ্যে বাজারজাত করা আশা করছেন কৃষকরা।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নাসরুম মিল্লাত বলেন ”এসএপিসি প্রকল্পে সরকারের দেওয়ার সুযোগ এর পুরোটাই কাজে লাগিয়েছে এখানকার কৃষকরা পুরুষদের পাশাপাশি এখানে প্রায় ৪০ ভাগ নারী চাষী নিরাপদ সবজি উৎপাদন করেন।