Amar Praner Bangladesh

কুষ্টিয়া শহরের পেয়ারাতলা “রক্তের নেশায় মেতে উঠেছে খুনি চক্র!

 

 

হাসনাত রাব্বু, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি :

গত ৫ এপ্রিল রাত্রি সাড়ে ৯ টার দিকে কুষ্টিয়া শহরের পেয়ারাতলায় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতা নজরুল ইসলাম বাবু ও তার ভাই সাংবাদিক নেতা হারুন-অর-রশিদের বাসায় হামলা চালিয়েছে সন্ত্রাসীরা। এসময় বাবু বাড়ির বাহিরে আসলে তাকে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে তার পা ভেঙে দেয়া হয়। বাবু বর্তমানে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন ।
কারা হামলা চালিয়েছে জানতে চাইলে বাবু জানান, ২০০১ সালে তার ভাই নুরুল ইসলাম বাচ্চুকে যারা প্রকাশ্যে দিবালোকে হত্যা করেছিল সেই হাবি বাহিনী তার উপর আক্রমণ করেছে । বাবু কুষ্টিয়া শহরের ৫ নং ওয়াড আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বলে জানান।

তিনি জানান, ঘটনার নেপথ্যে গত ২/৯/২০০১ আনুমানিক সকাল ৮.৪৫ সময় কুষ্টিয়া শহরের পেয়ারাতলায় প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা করা হয় নুরুল ইসলাম বাচ্চু নামে একজন বিশিষ্ট ঠিকাদারকে । বাচ্চু হত্যার এক মাস পূর্বে তার ভাই সাংবাদিক নেতা হারুন-অর-রশিদ তাদের পরিবারের জানমাল ও নিরাপত্তা চেয়ে কুষ্টিয়া মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন ডাইরি নম্বর (৩৫) তারিখ ১/৮/২০০১ । এরপর হত্যা মামলাটি করা হয় ২/৯/২০০১ তারিখে মামলা নম্বর (৪) জি আর নম্বর ২২৪/২০০১ ধারা ১৪৭,১৪৮,১৪৯,৩০২,১১৪,১২০খ দন্ডবিধি । মামলাটি খুলনা দ্রুত বিচার আদালতে সাক্ষী হয় এবং পরবর্তীতে রাজশাহী দ্রুত বিচার আদালতে রায় হয়। এই মামলায় প্রায় অর্ধশত সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়। মোট আসামি ছিলেন ১৫ জন তারমধ্যে ৭ জনার ফাঁসির রায় এবং ৮ জন খালাস পায় । খালাসের বিরুদ্ধে এই মামলার বাদী হারুন-অর-রশিদ হাইকোর্টে আপিল করেন।

পরিতাপের বিষয় অনিবার্য কারণবশত হাইকোর্ট থেকে সমস্ত আসামি খালাস পায় । পরবর্তীতে সরকার পক্ষ থেকে মহামান্য সুপ্রিম কোর্টে লিভ টু আপিল চাইলে লিভ টু আপিল মঞ্জুর হয় , যাহার ক্রিমিনাল আফিল নম্বর ১৩৬,১৩৭,১৩৮,১৩৯ সন ২০১৪ সুপ্রিম কোর্ট আপিল বিভাগ ঢাকা বাংলাদেশ । এছাড়া বাদীর ছোট ভাই নজরুল ইসলাম বাবু পরিবারের জানমালের নিরাপত্তা চেয়ে হাইকোর্ট ডিভিশনে রিট পিটিশন করে যার নম্বর ৮৪/২০১২ । হাইকোর্টের মহামান্য বিচারপতি জনাব সামসুদ্দিন চৌধুরী ও জনাব জাহাঙ্গীর হোসেন দরখাস্তকারীর পরিবারের জানমালের নিরাপত্তার আদেশ প্রদান করেন এবং সে আদেশের কপি মাননীয় স্বরাষ্ট্র সচিব বাংলাদেশ সচিবালয় ঢাকা, ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশ পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স ঢাকা, জেলা প্রশাসক কুষ্টিয়া, পুলিশ সুপার কুষ্টিয়া, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মডেল থানা কুষ্টিয়া কে প্রদান করা হয় ।

গত ২২/৩/২০২২ পরিবারের জানমালের নিরাপত্তায় পুনরায় হাইকোর্টের নিরাপত্তা প্রদানের নির্দেশনার কফি সহ উপরোক্ত প্রশাসনের সর্বস্তরের দপ্তরে ডাক বিভাগের মাধ্যমে পত্র প্রদান করা হয় । এ ঘটনার পর গত ৫/৪/২০২২ আনুমানিক রাত্রি সাড়ে ৯ টার দিকে বাচ্চু হত্যা মামলার বাদী হারুন-অর-রশিদ ও তার ভাই নজরুল ইসলাম বাবুর বাড়ির উপর হত্যাকারী ও তার সঙ্গীয় বাহিনীরা আক্রমণ চালায়। বাবু কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে অর্থোপেডিক বিভাগে চিকিৎসাধীন আছেন ।এসংবাদ লেখা পর্যন্ত কোন মামলা হওয়ার খবর পাওয়া যায় নাই , এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করলেও কোন পুলিশি তৎপরতা লক্ষ্য করা যায়নি বলে এলাকাবাসী অভিযোগ করেন ।