Amar Praner Bangladesh

কুষ্টিয়ার ঝাউদিয়ায় সাবেক ইউপি সদস্যের হাতে কৃষক খুন

 

 

হাসনাত রাব্বু, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি :

কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় ঝাউদিয়া ইউনিয়নে চার খুনের রেশ কাটতে না কাটতে আবারও খুনের ঘটনা ঘটছে। এবার বাঁশ কাটাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে একজন নিহত হয়েছেন। এই ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছে আরো ২ জন। তাদের আশংকাজনক অবস্থায় নেয়া হয়েছে হাসপাতালে। এতে আবারও উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে ওই এলাকা।

আজ শনিবার (২১ মে) বেলা ১১টার দিকে কুষ্টিয়ার সদর উপজেলার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) থানার ঝাউদিয়া কালীতলা এলাকায় বাঁশের মাথা কাটাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে কৃষক জসিম (৪০) নামে একজন নিহত হয় । নিহত জসিম একই এলাকার মৃত পাতারি মন্ডলের ছেলে। এ ঘটনায় নূর ইসলামের ছেলে রশিদুল ইসলাম রশি, নিহত জসিমের স্ত্রী রেখা আহত হয়েছে।

স্থানীয় এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, মৃত আহম্মদ মন্ডলের ছেলে লালন মেম্বারের বিক্রি করা জমি নিয়ে চাচাতো ভাই নিহত জসিমের সাথে লালন মেম্বারের জমিজমা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিলো। শনিবার সকালে কালবৈশাখী ঝড়ে সেই বিরোধপূর্ণ জমিতে হেলে পড়া বাঁশের মাথা কাটাকে কেন্দ্র করে লালন মেম্বার ও তার দুই ছেলে আকাশ হোসেন ও আশরাফুল ইসলাম নয়নের সাথে নিহত জসিমের কথা কাটাকাটি হয়। এই নিয়ে তর্কবিতর্কের এক পর্যায়ে লালন মেম্বার তার দুই ছেলে আকাশ হোসেন ও আশরাফুল ইসলাম নয়নসহ অন্যান্য লোকজন সাথে করে হাসুয়া, দা, ফালাসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে জসিম ও তার লোকজনের ওপর হামলা চালায়।

এ সময় প্রতি পক্ষের ফালার আঘাতে জসিম গুরুতর আহত হয়। তাকে উদ্ধার করে আশংকাজনক অবস্থায় কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তার মৃত্যুর খবরে এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে।

এ ব্যাপারে ইবি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, বাঁশের মাথা কাটাকে কেন্দ্র করে চাচাতো ভাইয়ের সাথে কথাকাটাটির জের অপর চাচাতো ভাই ও তার লোকজনের সাথে সংঘর্ষে জসিম নিহত হয়েছেন। অপরাধীদের আটকের চেষ্টা চলছে। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।