Amar Praner Bangladesh

কুষ্টিয়ায় ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ৮ মেম্বারের অনাস্থা

 

 

হাসনাত রাব্বু, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি :

কুষ্টিয়া দৌলতপুর উপজেলার ১৪ নং আড়ীয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান হেলাল উদ্দিন কর্তৃক দূর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারিতার বিরুদ্ধে অনাস্থা এনেছে মেম্বাররা।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় বরাবর উক্ত পরিষদের ৮ জন সদস্যের সাক্ষরিত একটি অনাস্থা নামা জমা দিয়েছে।উক্ত পরিষদের ২ নং ওয়ার্ডের সদস্য সাদ আহমেদ আদর বাদি হয়ে অনাস্থা নামা জমা দেয়।

যার অনুলিপিও দেয়া হয়েছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, জেলা প্রশাসক,স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়, কুষ্টিয়া অফিস,উপজেলা চেয়ারম্যান,মাননীয় সংসদ সদস্য কুষ্টিয়া ১ বরাবর। অনাস্থায় যা উল্লেখ করা হয়েছে তা নিম্নরুপ।

বিনীত নিবেদন এই যে, আমি মোঃ সাদ আহম্মেদ (আদর), পিতা- মৃত দৌলত আলী মন্ডল, সাং আড়িয়া, থানা- দৌলতপুর, জেলা- কুষ্টিয়া পরপর তৃতীয় বারের নির্বাচিত মেম্বর । আমি দৌলতপু উপজেলার ১৪নং আড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের ২নং ওয়ার্ডের নির্বাচিত সদস্য। ১৪নং আড়িয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব হেলাল উদ্দিন গত ২৮/১১/২০২১ তারিখের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নির্বাচিত হয়ে গত ১০/০১/২০২২ তারিখে ক্ষমতা গ্রহণ করেন। চেয়ারম্যান হেলাল উদ্দিন ক্ষমতা গ্রহণের পর হইতে পরিষদে বিভিন্ন দূর্নিতী ও স্বেচ্ছাচারিতার মাধ্যমে পরিষদ পরিচালনা করিয়া আসিতেছেন। হেলাল উদ্দিন পরিষদের দায়িত্বভার গ্রহনের পর দীর্ঘ ০৭ মাস অতিবাহিত হইলেও অদ্যবধি কোন প্যানেল চেয়ারম্যান নির্বাচন করেন নাই। তিনি দূর্নিতী ও স্বেচ্ছাচারিতা করিবার লক্ষে উক্ত ইউনিয়ন পরিষদের কোন নির্বাচিত সদস্যদের সহিত কোন আলাপ আলোচনা না করিয়া একক ভাবে বিভিন্ন সিধান্ত গ্রহণ করিয়া থাকেন। তিনি পরিষদের ক্ষমতা গ্রহণের পূর্বেই কা, বি, খা এর প্রকল্প হইতে তালবাড়িয়া বিলের ধারের সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মোড় হইতে গোরস্থান অভিমুখে মাটির রাস্তা নির্মান দেখান যাহার স্মারক নং ৫১.০১.৫০৩৯.০০০.১৪.০০১.২১-০৩ তারিখ ০৩/০১/২০২২। তিনি উক্ত রাস্তায় কোন মাটি উত্তোলন না করিয়া ৮নং ওয়ার্ডের মেম্বর কামরুল ইসলামের সহযোগিতায় বিল ১,১০,০৭৪ /= (এক লক্ষ দশ হাজার চুয়াত্তর) টাকার উত্তোলন করিয়া টাকা আত্মসাৎ করিয়াছেন এবং অতিদরিদ্রের কর্ম সংস্থান প্রকল্প হইতে লাল নগর অবিরুলের বাড়ী হইতে নজরুলের সেচ পাম্প অভিমুখে মাটির রাস্তা নির্মান দেখান যাহার স্মারক নং ৫১.০১.৫০.৩৮.০০০.৮৬.০০১.২১-৯৮১. তারিখ ২৭/১২/২০২১ । তিনি উক্ত রাস্তায় নাম মাত্র মাটি উত্তোলন না করিয়া ৭নং ওয়ার্ডের মেম্বর মিজানুর সহযোগিতায় ৬,৬১,৬০০ /= (ছয় লক্ষ একষট্টি হাজার ছয়শত) টাকার বিল উত্তোলন করিয়া টাকা আত্মসাৎ করিয়াছেন। হেলাল উদ্দিন পরিষদের ক্ষমতা গ্রহণের পর তালবাড়ীয়া খালপাড়া লিয়াকত ঠাকুরের বাড়ির মেইন রাস্তা হইতে সাগর খালী নদী অভিমুখে মাটির রাস্তা নির্মান দেখান যাহার স্মারক নং- ৫১.০১.৫০০৩৯.০০২০.৯৬.০০১.২১-৩৫১ তারিখ ২৮/০৪/ ২০২২।

সহযোগিতায় ৯,৩৬,০০০/= (নয় লক্ষ ছত্রিশ হাজার) টাকার বিল উত্তোলন করিয়া টাকা আত্মসাৎ করিয়াছেন এবং কা, বি, খা এর প্রকল্প হইতে তালবাড়ীয়া ইছাপর বাড়ি অভিমুখে মাটির রাস্তা সংস্কার দেখাইয়া ২,৭০,০৮৯/= (দুই লক্ষ সত্তর হাজার ঊননব্বই) টাকার বিল উত্তোলন করিয়া টাকা আত্মসাৎ করিয়াছেন। চেয়ারম্যান হেলাল উদ্দিনের উক্ত দূর্নিতী ও স্বেচ্চারিতার বিরুদ্ধে আমি সহ ১নং ওয়ার্ডের মেম্বর আলেক উদ্দিন, ৩নং ওয়ার্ডের মেম্বর হামিদুল ইসলাম, ৪নং ওয়ার্ডের মোঃ উদ্দিন, ৫নং ওয়ার্ডের মেম্বর মহির উদ্দিন, ৬নং ওয়ার্ডের মেম্বর মাহিরুল ইসলাম, ১,২,৩ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা মেম্বর মোছা রিতা খাতুন, ৭,৮,৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা মেম্বর আয়েশা সিদ্দিকা গণ প্রতিবাদ করিলে তাহাদের কোন কথায় কর্নপাত না করায় এবং দূর্নিতী ও স্বেচ্ছাচারিতা হইতে বিরত না থাকায় হেলাল উদ্দিনের বিরুদ্ধে অনাস্থা জ্ঞাপন করিতেছেন ।

অতএব, জনাব ১৪নং আড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হেলাল উদ্দিন এর বিরুদ্ধে উক্ত ইউনিয়ন পরিষদের উপরোক্ত সদস্যগণ কর্তৃক অনাস্থা প্রস্তাব আমলে গ্রহণ করিয়া চেয়ারম্যান হেলাল উদ্দিনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করে আমাদের বাধিত করিবেন ।