Amar Praner Bangladesh

কুষ্টিয়ায় র‍্যাবের অভিযানে হত্যা মামলার ২ আসামী গ্রেফতার

 

 

হাসনাত রাব্বু, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি :

 

কুষ্টিয়ায় র‍্যাবের অভিযানে ভেড়ামারা উপজেলায় রক্সি পেইন্ট এর এরিয়া ম্যানেজার লোকমান হোসেন হত্যা মামলায় কিলিং মিশনের প্রধান আসামি সহ ২ জন গ্রেফতার হয়েছে। গত ৭ আগষ্ট বিকাল আনুমানিক সাড়ে ৬ টার সময় ঢাকা জেলার সাভার এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামীরা হলেন, ভেড়ামারা চাদগ্রাম পৌর রেলগেইট দক্ষিণ পাড়া এলাকার মৃত দাউদ খন্দকার ওরফে মতিয়ার রহমানের ছেলে মােঃ দর্পণ আলী (৬১),ও দর্পনের ছেলে সােহানুর রহমান সােহান (২২)। সোমবার (৮ আগষ্ট) সকাল ১০ টার সময় র‍্যাব-১২ কুষ্টিয়া ক্যাম্পের সম্মেলন কক্ষে এক প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন র‍্যাব -১২ কুষ্টিয়া ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার স্কোয়ান্ড্রন লিডার ইলিয়াস খান।

র‍্যাব -১২ কুষ্টিয়া ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার স্কোয়ান্ড্রন লিডার ইলিয়াস খান জানান, গত ৩ আগষ্ট সকাল আনুমানিক সাড়ে ৯ টার সময় কুষ্টিয়া ভেড়ামারা সরকারি পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের গলির পাশে পলিথিন দ্বারা মােড়ানাে অবস্থায় একটি অজ্ঞাত পরিচয়ের মৃতদেহ উদ্ধার করে ভেড়ামারা থানা পুলিশ। পরবর্তীতে মৃতদেহটি রক্সি পেইন্ট কোম্পানি লিমিটেড এর কুষ্টিয়া অঞ্চলের এরিয়া ম্যানেজার লােকমান হােসেন এর বলে তার স্ত্রী শনাক্ত করে।

নিহত লােকমান হােসেন গত ১ আগষ্ট সকাল সাড়ে ১০ টার সময় কুষ্টিয়া শহরে তার ভাড়া বাসা হতে কোম্পানির মালের অর্ডার নেওয়া ও বকেয়া বিল আদায়ের জন্য ভেড়ামারা এলাকার উদ্দেশ্যে বের হন। ঐদিন বিকেলে তার স্ত্রী লােকমান হােসেন এর মােবাইল ফোনে কল দিলে ফোন বন্ধ পান এবং এরপর থেকে লােকমান হােসেন নিখোঁজ হন। এ ঘটনার প্রেক্ষিতে তার স্ত্রী গত ২ আগষ্ট কুষ্টিয়া জেলার ভেড়ামারা থানায় তার স্বামী নিখোজ বলে একটি সাধারন ডায়েরি করেন। উক্ত হত্যাকান্ডের প্রেক্ষিতে নিহতের স্ত্রী জিন্নাত আরা টুম্পা বাদী হয়ে ৩ আগষ্ট ভেড়ামারা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন, হত্যাকান্ডটি বিভিন্ন জাতীয় পত্রিকা ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ায় প্রচারিত হলে দেশব্যাপী ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়