Amar Praner Bangladesh

কুষ্টিয়ায় শ্বশুরের বাড়িতে জামাইয়ের রহস্যজনক মৃত্যু

 

 

হাসনাত রাব্বু, কুষ্টিয়া প্রতিনিধি :

কুষ্টিয়া সদর উপজেলার লাহিনী বটতলা খুনকার পাড়া এলাকায় শ্বশুরবাড়িতে জামাই নাসির হোসেন (৩২) নামে এক যুবকের গলায় দড়ি দেয়া অবস্থায় ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয় ।

সোমবার (২৪ জানুয়ারি ) সকালে এ ঘটনা ঘটে । নিহত নাসির হোসেন কুষ্টিয়া সদর উপজেলার আলামপুর ইউনিয়ন ভাদালিয়া কাথুলিয়া গ্রামের সাজ্জাদ হোসেনের ছেলে । স্থানীয় ও নিহত নাসিরের শ্বশুর বাড়ির লোকজন লাশ দড়ি থেকে নামিয়ে রেখে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে লাশ উদ্ধার করে ময়ানাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। গত রবিবার (২৩ জানুয়ারী) রাতে নাসির তার শ্বশুর বাড়ি লাহিনী বটতলা এলাকায় আসে এবং পরদিন সকালে তার রহস্যজনক লাশ পাওয়া যায়।

নাসিরকে হত্যার পর তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন গলাই দড়ি দিয়ে ঝুলিয়ে রেখেছে বলে দাবি করেছে নিহত নাসিরের ছোট ভাই নাজমুল। নিহতের পরিবার সুত্রে জানা যায়, কুষ্টিয়া সদর উপজেলার লাহিনী বটতলা খুনকার পাড়া এলাকার শওকত আলীর মেয়ে সুমাইয়া সুলতানা কাঞ্চন (৩২) এর স্বামী ২০১৪ সালে সড়ক দূর্ঘটনায় মারা যাওয়ার পর ২০১৬ সালে প্রেমের সম্পর্কে সুমাইয়ার সাথে বিয়ে হয় কুষ্টিয়া সদর উপজেলা আলামপুর ইউনিয়নের ভাদালিয়া কাথুলিয়া গ্রামের সাজ্জাদ বিশ্বাসের ছেলে নাসির হোসেনের। সুমাইয়ার আগের পক্ষের একটি ছেলে সন্তানও রয়েছে। বিয়ের পর থেকেই নাসির তার বাড়িতে থাকতো এবং সুমাইয়া ঢাকাতে চাকরী করতো। সুমাইয়া কুষ্টিয়াতে তার বাড়িতে বেড়াতে আসার কারনে নাসির তার শ্বশুর বারিতে গিয়ে রাত থাকার পর সকালেই লাশ হয়।

এ বিষয়ে কুষ্টিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ সাব্বিরুল আলমের সাথে মুঠোফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, স্থানীয়রা পুলিশে খবর দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করেছে। তদন্তের পর আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।