Amar Praner Bangladesh

কুষ্টিয়া ছেলের হাতে বাবা খুন

 

 

হাসনাত রাব্বু, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি :

কুষ্টিয়া চর মিলপাড়া এলাকা সন্ত্রাস ও মাদকের এক অভয়াশ্রম। শিশুকণ্যাকে ধর্ষণ শেষে হত্যা, নদী থেকে ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার। এ সব ঘটনা পর এখনো অপরাধীদের আইনের আওতায় আনতে পারেনি প্রশাসন। এউ দুটি হত্যাকান্ডের ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতে এবার একই এলাকায় ছেলের হাতে বাবা খুন ! কুষ্টিয়া পৌরসভার ১০ নম্বর ওয়ার্ডের চর মিলপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত বাবু হোসেন (৪২) কুষ্টিয়া শহরের চর মিলপাড়া এলাকার মকবুল হোসেনের ছেলে। তিনি ঢাকায় ফেরি করে খেলনা বিক্রি করতেন। ঢাকা থেকে দুদিন আগে বাড়ি এসেছেন বাবু। অভিযুক্ত রমিজ হোসেন (১৮) নিহত বাবুর দ্বিতীয় ছেলে। তিনি দড়ির মিলে কাজ করেন।

পুলিশ, নিহতের পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দু’দিন ধরে পারিবারিক বিষয় নিয়ে বাবা বাবু ও তার ছেলে রমিজের মধ্যে ঝগড়া চলে আসছিল।

শুক্রবার (২০মে) সকালে দুজনের মধ্যে এ নিয়ে কথা-কাটাকাটি ও তুমুল ঝগড়া চলছিল। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধলে ছেলে বাঁশ দিয়ে আঘাত করলে বাবা গুরুতর আহত হন। তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় কুষ্টিয়া হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত স্বজনরা বলেন, নিহত বাবু দুদিন আগে বাড়িতে এসেছেন। বাড়িতে এসে ছেলের কাছে টাকা চেয়েছেন। কারণ ছেলে দড়ি ফ্যাক্টরিতে কাজ করে অর্থ উপার্জন করেন। টাকা না দেওয়া নিয়ে ঝগড়া চলছিল দুদিন ধরে। এ নিয়ে সকালে ছেলে তার বাবার মাথায় বাঁশ দিয়ে আঘাত করলে তার মৃত্যু হয়।

নিহত বাবুর স্ত্রী বলেন, আমি পরের বাড়িতে কাজ করে খাই। ছেলে দড়ি কারখানায় কাজ করে। তার বাবাকে টাকা না দেওয়ায় ঝগড়া হয়। ঝগড়ার জেরে বাঁশ দিয়ে বাবার মাথায় আঘাত করে ছেলে। এতে আমার স্বামীর মৃত্যু হয়েছে।
এ বিষয়ে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালের একাধিক সূত্র আঘাতে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাব্বিরুল আলম বলেন, পারিবারিক ঝগড়াকে কেন্দ্র এ হত্যাকাণ্ডটি ঘটেছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। অপরাধীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ ঘটনায় এখনো মামলা হয়নি।