Amar Praner Bangladesh

ক্রিকেটার তৈমুরকে গরম পানি ঢেলে হত্যার অভিযোগ

 

আমিনুল হক রিপন :

 

পারিবারিক কলহের জের ধরে ফেনীর ফ্রেন্ডশীপ ক্রিকেট ক্লাবের প্রতিভাবান সাবেক ক্রিকেটার কাউছার আলম তৈমুরকে গরম পানি ঢেলে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

রবিবার সকালে রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ণ ইউনিটের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় তৈমুরের। তৈমুরের ছোট ভাই তানজুর চৌধুরী জানান, দীর্ঘদিন ধরে খাদিজা বিনতে শামস রূপার সাথে পারিবারিক নানা বিষয় নিয়ে তৈমুরের কলহ চলছিল।

গত সোমবার (১১ এপ্রিল) সকাল ৬ টার দিকে ভাবী ভাইয়ার সাথে ঝগড়া শুরু করে। এক পর্যায়ে ভাইয়ার শোর চিৎকার শুনে আমরা ছুটে গিয়ে দেখতে পাই গরম পানিতে তার শরীর ঝলসে দেয়া হয়েছে। সেখান থেকে প্রথমে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে আশংকাজনক অবস্থায় সেখানে থেকে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। চট্রগ্রাম মেডিকলে কলেজ কতৃপক্ষ তৈমুরকে ঢাকা শেখ হাসিনা বার্ণ ইউনিটে স্থানান্তর করে। এ ঘটনায় তার স্ত্রী খাদিজা বিনতে শামস রূপার বিরুদ্ধে তৈমুরের ছোট ভাই তানজুর চৌধুরী বাদী হয়ে ফেনী মডেল থানায় মামলা করেন।

এ ঘটনায় গতকাল শনিবার রাতে তৈমুরের স্ত্রী রূপাকে নাজির রোডের স্বপ্ন কুঠিরের দ্বিতীয় তলা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার সাথে থাকা দুই মেয়েকে পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে। তৈমুর তার স্ত্রী ও দুই কন্যাকে নিয়ে নাজির রোডে নিজেদের পারিবারিক ভবন স্বপ্ন কুঠিরের ২য় তলায় থাকতেন। নিহত কাউছার আলম তৈমুর শহরের নাজির রোড এলাকার আবু তৈয়ব চৌধুরীর ছেলে। তৈমুরের মৃত্যুর আগে সে একটি চিরকুটে লিখে দিয়েছেন তার মৃত্যুর জন্য তার স্ত্রী রূপা দায়ী। তৈমুরের মৃত্যুতে তৈমুরের সহপাঠীরা উই আর ৯৪ গ্রুপের সকলে গভীর শোক প্রকাশ করেছে এবং প্রকৃত দোষীকে আইনের আওতায় এনে যথাযথ শাস্তির দাবী জানিয়েছে।