ক্ষমতা হস্তান্তরে ট্রাম্পের সায়, মন্ত্রিসভা ঘোষণা করছেন বাইডেন

 

 

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

 

অবশেষে নানা সমালোচনার পর ক্ষমতা হস্তান্তরে রাজি হয়েছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিদায়ী রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প। নির্বাচনে জয়ী ডেমোক্রেটিক দলের প্রার্থী জো বাইডেনের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তরের আনুষ্ঠানিক প্রক্রিয়া শুরুতে তিনি রাজি হয়েছেন বলে জানিয়েছেন দেশটির জেনারেল সার্ভিস এডমিনিস্ট্রেশন (জিএসএ) বা সাধারণ পরিষেবা প্রশাসনের প্রধান এমেলি মারফি।

বিবিসিসহ আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো এ সংবাদ জানিয়েছে। স্থানীয় সময় গতকাল ২৩ নভেম্বর, সোমবার সংবাদ সম্মেলনে এমেলি জানান, ট্রাম্প প্রশাসন থেকে দেওয়া চিঠির মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবেই ক্ষমতা হস্তান্তর প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে ট্রাম্পের প্রস্তুতির কথা জানানো হয়েছে।

ক্ষমতা হস্তান্তর প্রক্রিয়া দেখাশুনার দায়িত্বে থাকা সংস্থাকে ‘যা করার প্রয়োজন করুক’ বলে মন্তব্যও করেছেন ট্রাম্প। তবে একই সঙ্গে নির্বাচনে পরাজয়ের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেছেন তিনি।

এর আগে ক্ষমতা হস্তান্তর প্রক্রিয়ায় বিলম্ব হওয়ায় ডেমোক্রেটিক দলের পক্ষ থেকে মারফিকে চাপ দেয়ার সংবাদ প্রকাশিত হয়েছিল। তবে বাইডেনকে মারফি জানিয়েছেন, এই বিলম্বে কোন দল বা প্রশাসন চাপ সৃষ্টি করেনি।

এদিকে বাইডেনকে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ‘আপাত বিজয়ী’ হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার কথা জানিয়েছে দেশটির জেনারেল সার্ভিস এডমিনিস্ট্রেশন (জিএসএ)। মূলত মিশিগানে নির্বাচনের ফল আনুষ্ঠানিকভাবে হাতে আসার পরপরই তার বিজয় চূড়ান্ত স্বীকৃতি লাভ করেছে।

এদিকে আজই নতুন রাষ্ট্রপতি জো বাইডেন তার নতুন মন্ত্রিসভার নাম ঘোষণা করতে পারেন। নতুন মন্ত্রিসভায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে অ্যান্টনি ব্লিনকেন দায়িত্ব পেতে যাচ্ছেন বলে শোনা যাচ্ছে। এছাড়াও ইতোমধ্যে জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক বিশেষ দূত হিসেবে সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরিকে মনোনয়ন দিয়েছেন জো বাইডেন।

তার মন্ত্রিসভায় হোমল্যান্ড সিকিউরিটির দায়িত্বে আলেহান্দ্রো মায়োর্কাস, জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার পরিচালক পদে এভরিল হেইনিস, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা পদে জেক সুলিভান ও জাতিসংঘে মার্কিন রাষ্ট্রদূত হিসেবে লিনডা থমাস-গ্রিনফিল্ডের নাম উঠে এসেছে।