Amar Praner Bangladesh

খুলনায় ছাত্রীকে কু-প্রস্তাব দেওয়ায় বরখাস্ত প্রধান শিক্ষক জেল হাজতে

 

খুলনা প্রতিনিধি :

 

খুলনা জেলা এর রূপসা উপজেলার ৫নং ঘাটভোগ ইউনিয়নের ডোবা বহুমুখী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দিপ্তীশ্বর বিশ্বাস নিজ স্কুলের ছাত্রীকে কু-প্রস্তাব এবং শ্লীতাহানির অভিযোগে ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে রূপসা থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

মামলা নং-১১,তাং-১০/৮/২২। মামলা দায়ের পর আটককৃত প্রধান শিক্ষককে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে পুলিশ জানায়।

জানা যায়, উপজেলার ঘাটভোগ ইউনিয়নের ডোবা বহুমুখী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দিপ্তীশ্বর বিশ্বাস দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন ছাত্রীদেরকে কু-প্রস্তাবসহ অশালীন আচরণ করে আসছিল।

গত কয়েক দিন আগে নবম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে তিনি কু-প্রস্তাব দেন।তার প্রস্তাবে উক্ত শিক্ষার্থী রাজি না হলে সুকৌশলে অন্যান্য ছাত্রীদের ছুটি দিয়ে উক্ত ছাত্রীর শ্লীলতাহানি ঘটায়।

ভুক্তভোগী চিৎকারে আশপাশের লোক এগিয়ে এলে তিনি স্থান ত্যাগ করেন।বিষয়টি শিক্ষার্থীদের মধ্যে জানাজানি হলে তার অপকর্মের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে শিক্ষার্থীরা।

গত বুধবার সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত প্রধান শিক্ষককে আবদ্ধ করে রাখে শিক্ষার্থীরা এবং মানববন্ধন এবং প্রতিবাদ সমাবেশ করে।

পরবর্তীতে ছাত্র-ছাত্রীরা বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে ঢুকে কাগজপত্র তছনছ করে। এ সময় প্রধান শিক্ষককে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা মারধর করার চেষ্টা করে।

অবশেষে প্রধান শিক্ষককে থানা পুলিশ আটক করলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। ঘটনার সূত্র ধরে ভুক্তভোগীর পিতা বাদী হয়ে রাতে রূপসা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমনে একটি মামলা দায়ের করেন।

এর আগে ২০০৮ সালে উক্ত প্রধান শিক্ষক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হিসেবে কর্মরত থাকা অবস্থায় তার নামে আরও একটি নারী ও শিশু নির্যাতন দমনে মামলা দায়ের হয়েছে ছিলো।

এঘটনার পর অত্র বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ কামাল উদ্দিন বাদশা উক্ত প্রধান শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত করেন।

পুলিশ ১১ আগষ্ট সকালে উক্ত প্রধান শিক্ষককে কোর্ট হাজতে প্রেরণ করে ।