Amar Praner Bangladesh

খুলনায় প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পাচ্ছে ৩৫৪টি পরিবার

 

নাজিম সরদার, খুলনা :

মুজিববর্ষে ‘বাংলাদেশের একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই নির্দেশনা বাস্তবায়নে দেশের সকল ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রম চলমান রয়েছে। আগামী ২১ জুলাই প্রধানমন্ত্রী ৩য় পর্যায়ের ২য় ধাপে দেশের ২৬ হাজার ২২৯ টি ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবারের হাতে জমির দলিল ও ঘরের চাবি হস্তান্তর করবেন। এরই অংশ হিসেবে খুলনা জেলায় ৩৫৪ টি পরিবারের মাঝে জমিসহ ঘর হস্তান্তর করা হবে। এর মধ্যে রূপসা উপজেলায় ২০টি, তেরখাদায় ৫২টি, ডুমুরিয়ায় ৯০টি, পাইকগাছায় ৪৭টি, দাকোপে ১০টি, কয়রায় ১০টি ও বটিয়াঘাটা উপজেলায় একশত ২৫টি পরিবারের মাঝে জমিসহ ঘর হস্তান্তর করা হবে।

খুলনার জেলা প্রশাসক মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদার আজ (মঙ্গলবার) বিকেলে তাঁর সম্মেলনকক্ষে প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় কর্মরত স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় ও প্রেসব্রিফিং এ এসকল তথ্য জানান।

জেলা প্রশাসক তাঁর বক্তৃতায় বলেন, খুলনা জেলায় ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের পুনর্বাসনের ন্যায় বিশাল কর্মযজ্ঞ সফলভাবে পরিচালিত হচ্ছে। উপকারভোগী বাছাইয়ের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে। স্থানীয় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের সমন্বয়ে নির্মাণাধীন ঘরগুলোর সঠিক মান রক্ষায় সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ১৯৯৭ সাল থেকে আশ্রয়ণসহ সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও সংস্থার অধীনে গৃহনির্মাণের মাধ্যমে সাত লাখ ১১ হাজার ২৬৩টি পরিবারকে পুনর্বাসন করা হয়েছে। এর মধ্যে মুজিববর্ষে তিনটি পর্যায়ে এক লাখ ৮৫ হাজার একশত ২৯টি ঘর বরাদ্দ করা হয়। খুলনা জেলায় প্রথম পর্যায়ে নয়শত ২২টি, দ্বিতীয় পর্যায়ে এক হাজার তিনশত ৫১টি, তৃতীয় পর্যায়ের প্রথমধাপে চারশত ৭৩টি পরিবারকে জমিসহ ঘর হস্তান্তর করা হয়েছে এবং আগামী ২১ জুলাই তিনশত ৫৪টি পরিবারকে জমিসহ ঘর হস্তান্তর করা হবে। এছাড়া জেলায় ৭৯টি গৃহ হস্তান্তরের জন্য নির্মাণাধীন রয়েছে। আগামী ২১ জুলাই পঞ্চগড় ও মাগুরা জেলার সকল উপজেলাসহ দেশের ৫২টি উপজেলাকে ভূমিহীন-গৃহহীনমুক্ত ঘোষণা করা হবে।

মতবিনিময় ও প্রেসব্রিফিং এ খুলনা আঞ্চলিক তথ্য অফিসের উপপ্রধান তথ্য অফিসার জিনাত আরা আহমেদ, খুলনা জেলার স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক মোঃ ইউসুপ আলী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ সাদিকুর রহমান খান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট পুলক কুমার মন্ডল, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) এসএম মুনিম লিংকনসহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।