Amar Praner Bangladesh

গাছায় স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ

 

 

মোঃ আরিফ শেখ :

 

গাজীপুর গাছা থানাধীন গাছা হাই স্কুলের শিক্ষকের বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ করেছে ঐ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী মিম আক্তার (১৩)। গত ২৮ ফেব্রুয়ারী ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন মিমের বাবা খোরশেদ বেপারী।

গত ২৮ ফেব্রুয়ারী দুপুর ৩ টায় মিমের ভাই রাকিবের নাম্বারে কল করে স্কুলের শিক্ষক মোঃ মিল্লাদ (৪৫) বলেন, মিমকে তার মায়ের জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে জরুরী ভাবে স্কুলে পাঠাতে। শিক্ষকের কথা অনুযায়ী ৩ টা ৪৫ মিনিটে স্কুলে প্রবেশ করলে শিক্ষক মিল্লাদ মিমকে লাইব্রেরি কক্ষে নিয়ে দরজা বন্ধ করে দিয়ে অশ্লীল কথাবার্তা বলে এবং স্পর্শকাতর স্থানে হাত দিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে। পরে মিম দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় মিম বাসায় এসে তার মাকে বিষয়টি খুলে বলে।

এ বিষয়ে ছাত্রী মিমের বাবা বলেন, আমি গাছা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ নিয়ে গিয়েছিলাম কিন্তু থানা থেকে এখন পর্যন্ত কোন তদন্ত আসেনি। ঘটনার বিষয়ে মিমের বাবা স্কুল কমিটিতে বিচার চাইলে স্কুলের এডহক কমিটির সভাপতি জুয়েল মন্ডল ৩ সদস্য’র তদন্ত কমিটি গঠনের মাধ্যমে ঘটনার প্রাথমিক সত্যতা পেয়ে শিক্ষক মিল্লাদকে সাময়িক বরখাস্ত করেন। ঘটনার ৭ দিন পরে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হারুন অর রশিদ তাকে আবারও বিদ্যালয়ে ক্লাস নিতে ফিরিয়ে আনেন।

এ বিষয়ে স্কুলের প্রধান শিক্ষকের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তিনি কল কেটে দেন। এ বিষয়ে গাছা উচ্চ বিদ্যালয়ের এডহক কমিটির সভাপতি জুয়েল মন্ডলের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মেয়েটিসহ তার পরিবার আমার কাছে এসেছিল আমি সম্পূর্ণ ঘটনা শুনেছি।

এ বিষয়ে আমরা একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে অভিযুক্ত শিক্ষক মিল্লাদকে সাময়িক বরখাস্ত করেছিলাম কিন্তু প্রধান শিক্ষক আমাকে কিছু না জানিয়ে তাকে পুনরায় ক্লাসে ফিরিয়ে আনেন।