Amar Praner Bangladesh

গায়ের কাপড় বেচে হলেও কমদামে আটা দেব: পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী

 

 

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

 

একদিকে অর্থনৈতিক সংকট, অন্যদিকে বিশ্বজুড়ে যুদ্ধের চাপ, সেই সাথে আইএমএফের শর্তের জেরে চরম বেকায়দায় পড়েছে পাকিস্তানের নতুন সরকার। দেশের অভ্যন্তরে জনগণের চাপ তো আছেই। এ অবস্থায় শরীরের কাপড় বেচে হলেও সস্তায় আটার জোগান দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ।

প্রতিবেশী দেশ শ্রীলঙ্কার তুলনায় পাকিস্তানের অবস্থা খুব বেশি একটা ভালো নয়। এরই মধ্যে ডলারের দাম দুইশত রুপি ছাড়িয়েছে। ফলে মূল্য বেড়েছে সব কিছুরই। একই সাথে আন্তর্জাতিক অর্থ তহবিল আইএমএফের কথামতো ভর্তুকি তুলতে গিয়ে তেলের দাম এক লাফে বাড়ানো হয়েছে ৩০ টাকা।

ইমরান খানকে সরিয়ে ক্ষমতায় বসার পর গত শুক্রবার প্রথমবারের মতো জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেন শাহবাজ শরিফ। তিনি পাকিস্তানকে অর্থনৈতিক পরাশক্তি হিসেবে গড়ে তোলার প্রতিশ্রুতি দেন। কিন্তু কোন পথে সে লক্ষ্য অর্জিত হবে, সে ব্যাপারে কোনো নির্দেশনা ছিল না তার ভাষণে।

কিছু ক্ষেত্রে পূর্বসূরি ইমরান খানের ওপর দায় চাপিয়ে পার পেতে চেয়েছেন শাহবাজ শরিফ। এমনকি তেলের দাম বাড়ানোর পেছনে তিনি যুক্তি দেন, যখন গোটা বিশ্বে জ্বালানির মূল্য বাড়ছিল তখন আস্থা ভোটে হেরে যাওয়ার ভয়ে দেশে পেট্রোপণ্যের দাম কমিয়ে দিয়েছিলেন ইমরান। ফলে তার সরকারকে বাধ্য হয়ে দেশের খাতিরেই জ্বালানি তেলের দাম বাড়াতে হয়েছে।

সরকারের দায়িত্ব নেওয়ার আগে শাহবাজ শরিফ মূল্যবৃদ্ধি রোধ, দুর্নীতি দমন ও কর্মসংস্থানের যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, সেগুলো বাস্তবায়নের ব্যাপারেও তেমন কিছু জানাননি তিনি। বরং এক্ষেত্রেও ইমরানকে দায়ী করেছেন। বলেছেন, পাকিস্তানে মূল্যবৃদ্ধি ও বেকারত্বের জন্য দায়ী ইমরান খান।

দেশটিতে প্রতিদিনই জিনিসপত্রের দাম বাড়ছে। এ পরিস্থিতিতে খাইবার পাখতুনখোয়ার মুখ্যমন্ত্রী মাহমুদ খানকে গমের আটার দাম নিয়ন্ত্রণ করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ। ১০ কেজির আটার বস্তার দাম সর্বোচ্চ ৪০০ টাকার মধ্যে নামিয়ে আনার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। জনগণকে আশ্বস্ত করে এ সময় তিনি বলেন, এটি সম্ভব না হলে নিজের জামা বিক্রি করে হলেও সস্তায় মানুষের কাছে আটা পৌঁছে দেবেন তিনি। বর্তমানে দেশটিতে ১০ কেজি আটার দাম এগারোশো টাকার কাছাকাছি।

গত রোববার লাহোরের একটি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত জনসভায় পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি আবারো বলছি, গায়ের জামা বিক্রি করে হলেও মানুষের কাছে সস্তায় আটা পৌঁছে দেব। দেশকে উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির পথে ফেরাতে প্রয়োজনে নিজের প্রাণও দিয়ে দেব আমি।