শুক্রবার, ৩১ মার্চ ২০২৩, ০৭:১৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা করলে তার ক্ষতি হবে না: শাজাহান খান আগের মতোই রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে আরেকটি গভীর ষড়যন্ত্র হয়েছে: হানিফ হিন্দি সিনেমায় নৈতিকতা-মূল্যবোধের অভাব রয়েছে: কাজল যার আইনি প্যাঁচে অভিযুক্ত হলেন ট্রাম্প শামসুজ্জামানের মুক্তির দাবিতে ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ দেশে খাদ্যের অভাব নেই: শিক্ষামন্ত্রী রাজধানীর উত্তরখানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে চার প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা রামনা ইউনিয়ন প্রবাসী সংগঠনের ইফতার সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম সৌদি আরবে সাময়িকভাবে ভারত থেকে চিংড়ি আমদানি নিষিদ্ধ অন্য মামলায় শামসুজ্জামানকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ঘাটাইলে আ’লীগের মিছিলে হামলা ও সন্ত্রাস-নৈরাজ্য সৃষ্টির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ৩ মার্চ, ২০২৩
  • ২৯ Time View

 

 

আঃ রশিদ তালুকদার, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি :

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রতিবাদ মিছিল ও শান্তি সমাবেশে আলোচিত বীর মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমদ হত্যা মামলার আসামি আমানুর রহমান খান রানার নেতৃত্বে হামলা, ছাত্রলীগ নেতার বাড়ি ভাংচুর ও স্থানীয় আ’লীগ নেতাদের কুপিয়ে জখম করা সহ সন্ত্রাস ও নৈরাজ্য সৃষ্টির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে ঘাটাইল উপজেলা আওয়ামী লীগ। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, ঘাটাইল উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম লেবু।

উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যাালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেললে লিখিত বক্তব্যে শহিদুল ইসলাম লেবু জানান, টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের জনপ্রিয় নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমদ হত্যা মামলার জামিনপ্রাপ্ত আসামি সাবেক এমপি আমানুর রহমান খান রানার নেতৃত্বে হেলমেট পড়া সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রতিবাদ মিছিল ও শান্তি সমাবেশে পরিকল্পিতভাবে হামলা চালানো হয়।

তাদের অতর্কিত হামলায় ঘাটাইল উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা বাহাদুর আলম খান, আবুল কাশেম মেম্বার, সাবেক পৌর কাউন্সিলর সালাহউদ্দিন শাহিন, যুবলীগ নেতা শাহিন মিয়া, দৈনিক যায়যায়দিন পত্রিকার ঘাটাইল প্রতিনিধি উত্তম কুমার আর্য্য ও স্থানীয় সাপ্তাহিক জাহাজমারা পত্রিকার প্রতিনিধি মিলন মিয়া সহ অন্তত ১০ নেতাকর্মী আহত হয়।

তিনি জানান, এরআগে গত ২৬ ও ২৭ ফেব্রুয়ারি দুই দিনব্যাপী আমানুর রহমান খান রানার নির্দেশে তার সন্ত্রাসী বাহিনী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাংচুর, ছাত্রলীগ নেতা আবিদের বাসা ভাংচুর, সরকারি জিবিজি কলেজ ছাত্র সংসদ ভাংচুর এবং ঘাটাইলে সন্ত্রাস ও নৈরাজ্য সৃষ্টি করে।

২০১৮ সালের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে সরাসরি ভোটপ্রার্থনা করেন। স্থানীয় ইউপি নির্বাচনে প্রত্যেক ইউনিয়ন ও পৌরসভায় আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে সরাসরি নির্বাচনী প্রচারণা চালান।

লিখিত বক্তব্যে তিনি আরও জানান, ঘাটাইলে কোন সময় হানাহানি, খুনোখুনি ওসন্ত্রাসী কর্মকান্ড হয়নি। আমানুর রহমান খান রানা আসার পর ঘাটাইল একটি সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজির উপজেলায় রূপান্তরিত হয়েছে। ঘাটাইল উপজেলা আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে সন্ত্রাসীদের বর্বরোচিত হামলার তীব্র নিন্দা ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ঘাটাইল উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহিম মিয়া, সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা জিবিজি সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ সামছুল হক মনি, জামুরিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম খান হেস্টিংস, আলোক হেলথ কেয়ার ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপানা পরিচালক লোকমান হোসেন, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সরোয়ার আলম রুবেল, সাইদুর রহমান লিপু, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদুল হাসান, দপ্তর সম্পাদক আবু মুন্নাফ ছানা, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক হায়দার আলী, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক গোলজার হোসেন, সদস্য আকারম হোসেন খান, মজিবর রহমান, আলী আকবর প্রমুখ।

 

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

এই সাইটের কোন লেখা কপি পেস্ট করা আইনত দন্ডনীয়