Amar Praner Bangladesh

চেয়ারম্যানের ক্ষমতা প্রদানে সংবাদ সম্মেলন

 

 

শওকত আলী মন্ডল, রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি :

 

কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের ক্ষমতা প্রদানে মন্ত্রণালয় থেকে প্যানেল চেয়ারম্যান-১ কে দায়িত্ব না দিয়ে প্যানেল চেয়ারম্যান-২ কে দায়িত্ব দেওয়ার অপচেষ্টার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করেছেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়াম্যান মোজাফ্ফর হোসেন ।

এ বিষয়ে ১১ আগষ্ট বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার সময় নটান পাড় গ্রামে ফজললে করিম এর বাসভবনে এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ১৯৯৮ সালের উপজেলা পরিষদের ২৪নং আইনের ১৫ধারায় বলা আছে, ‘পরিষদ গঠনের পর প্রথম অনুষ্ঠিত সভার এক মাসের মধ্যে ভাইস চেয়ারম্যানরা তাদের নিজেদের মধ্যে হতে অগ্রাধিকারক্রমে দুই সদস্য বিশিষ্ট একটি চেয়ারম্যানের প্যানেল নির্বাচিত করবেন।’ সেই মোতাবেক ২০১৯ সালের ২৮ মে উপজেলা পরিষদ মিটিংয়ে সর্বসম্মতিক্রমে আমাকে (ভাইস চেয়ারম্যান মোজাফ্ফর হোসেন) প্যানেল চেয়ারম্যান-১ নির্বাচিত করা হয়।

চলতি বছরের ৪ জুলাই উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শেখ আব্দুল্লাহ’র মৃত্যুজনিত কারনে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। এরই পরিপ্রক্ষিতে বিধি মোতাবেক ২০২২ সালে ৭ আগষ্ট স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব মমতাজ বেগমের স্বাক্ষরিত একটি চিঠি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে আসে।

যাতে উল্লেখ রয়েছে, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপজেলা-০১ শাখার স্বারক নং ৪৬.০০.০০০০.০৪৬.১৮.১৫৪.১৯-১৬০ যার তারিখ ৭ আগষ্ট ২০২২ ইং মূলে উপজেলা পরিষদ (কার্যক্রম বাস্তবায়ন) বিধিমালা ২০১০ এর ১৫(৩) ধারা অনুযায়ি নতুন চেয়ারম্যানের কার্যভার গ্রহণ না করা পর্যন্ত ভাইস চেয়ারম্যানের প্যানেল চেয়াম্যান-১ কে অস্থায়ী চেয়ারম্যানের দায়িত্বসহ আর্থিক ক্ষমতা নির্দেশক্রমে প্রদান করা হয়।

প্রসঙ্গত গত ২৫ জুলাই প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব জাকির হোসেন এমপি, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশরাফুল আলম রাসেল ভাইচ চেয়ারম্যান মোজাফ্ফর হোসেনসহ সকল ইউপি চেয়ারম্যান, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গসহ প্যানেল চেয়ারম্যানের অগ্রাধিকার ও রেজুলেশনের ভিত্তিতে উপজেলা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে মহিলা ভাইচ চেয়ারম্যান মাহমুদা আক্তার স্মৃতিকে।

প্যানেল চেয়ারম্যান-১ মোজাফ্ফর হোসেন অভিযোগ করে বলেন, এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) আশরাফুল আলম রাসেলের সাথে একাধিকবার কথা বলা হলেও তিনি দায়িত্ব প্রদানে কার্যকরি কোনো ব্যবস্থা না করে বরং অবৈধভাবে প্যানেল চেয়ারম্যান-২ মাহমুদা আক্তার স্মৃতিকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী ও সংশ্লিষ্ট দপ্তরের উধ্বর্তন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রৌমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) আশরাফুল আলম রাসেল বলেন, অনলাইনে চিঠির সফ্ট কপি পেলেও অফিসিয়ালি হার্ড কপি এখনও পাইনি। উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের করা রেজুলেশন অনুযায়ী এবং প্রতিমন্ত্রী ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানসহ সকলের উপস্থিতিতে প্যানেল চেয়ারম্যান মাহমুদা আক্তার স্মৃতিকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তবে এ বিষয়ে জেলা প্রশাসকের সঙ্গে কথা বলে জানা যাবে।