Amar Praner Bangladesh

ছোট ভাইয়ের জমি দখলে নিতে বড় ভাইয়ের সন্ত্রাসী হামলা! আহত-৩

 

 

রবিউল আলম রাজু :

 

রাজধানীর তুরাগে ১০ নম্বর সেক্টর সাহেব আলী মাদ্রাসা সংলগ্ন এলাকায় ছোট ভাইয়ের জমি দখলে নিতে সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে হামলা চালায় আপন বড় ভাই সহ স্বজনদের বিরুদ্ধে। হামলাকারীরা হলেন বড় ভাই বিএনপি নেতা আলম চাঁন (৬৫), ভাতিজা শহিদুল (৩০), গালিব (২৭), আলমচাঁনের স্ত্রী সাহিদা (৪৬) হানিফ ভাণ্ডারী (৪৮) ও মিজান (৪৫) সহ ১০/১২ জন সন্ত্রাসী বাহিনীর লোকজন এ অতর্কিত হামলা ঘটনা ঘটে।

শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১ টার দিকে রাজধানীর তুরাগে ১০ নম্বর সেক্টর সাহেব আলী মাদ্রাসা সংলগ্ন এলাকায় এঘটনা ঘটে।

হামলার ঘটনায় আপন ছোট ভাই বিল্লাল (৪৫) চাচাতো ভাই কামাল(৩৮), ভাগিনা আলামিন(৩৫) গুরুতর আহত হয়।
আহতদের উদ্ধার করে টঙ্গী সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা প্রধান করে উত্তরা প্রাইভেট হাসপাতাল শীন শীন জাপানে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে হামলার ঘটনার পর তুরাগ থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনা স্থলে উপস্থিত হয়ে নিরব ভুমিকা পালন করে বলে জানান এলাকাবাসী।

এলাকাবাসী জানান, আলমচাঁন দীর্ঘ আট বছর যাবত ছোট ভাইদের জমি দখল করে একটি ট্রাক ইস্টান গড়ে তোলে তখন আলমচাঁন ছোট ভাইদের কথা দিয়েছিলো প্রতিমাসে জমির ভাড়া দিবে। কিন্তু আট বছরেও ছোট ভাইদের কোন ভাড়া দেননি বড় ভাই আলমচাঁন। দীর্ঘ ৮ বছর পর বড় ভাই এর নিকট জমি দখল বুঝে নিতে গেলেই হামলা চালায় আলমচাঁন ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী।

এসময় ছোট ভাই বিল্লাল তাদেরকে বাধা দিলে আলমচাঁন এবং তার ছেলে শহিদুল অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে মেরে ফেলার হুমকি দেয় বলে জানা যায়।
স্থানীয় লোকজন জানান, বিগত ১০ বছর যাবৎ আলম চাঁন তার চার ভাই বোনের জমি একাই ভোগ দখল করে রেখেছিলো।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগীরা ঢাকা ১৮ আসনের সাংসদ আলহাজ হাবিব হাসানকে অবগত করলে তিনি বিষয়টি আলোচনা সাপেক্ষে প্রশাসনিক সহায়তায় খুব দ্রুতই সমাধানের আশ্বাস দেন বলে জানা যায়।

তুরাগ থানার অফিসার ইনচার্জ মেহেদী হাসান সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, তুরাগের সাহেব আলী মাদ্রাসার পাশে একটি মারামারির ঘটনা ঘটেছে ঘটনার পরপর পুলিশ সেখানে যায় এবং পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। এ ঘটনায় দুই পক্ষের অভিযোগ নেয়া হয়েছে। ঘটনাটি তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।